kalerkantho

শুক্রবার। ৩১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ মে ২০২১। ০২ শাওয়াল ১৪৪২

সপ্তাহে তিনদিন বসবেন আপিল বিভাগ, তবে সীমিত পরিসরে

হাইকোর্ট বিভাগে বসবেন ৪টি বেঞ্চ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১১ এপ্রিল, ২০২১ ২০:৪৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সপ্তাহে তিনদিন বসবেন আপিল বিভাগ, তবে সীমিত পরিসরে

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে সপ্তাহে তিনদিন বসবে দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। তবে আপিল বিভাগে সীমিত পরিসরে ভার্চুয়ালি বিচার কাজ চলবে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত প্রতি সপ্তাহে রবি, মঙ্গল ও বৃহষ্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত চলবে বিচার কাজ। আর চেম্বার জজ বসবেন সোম ও বুধবার। আর হাইকোর্ট বিভাগের চারটি বেঞ্চে সোমবার থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সপ্তাহে ৫দিনই (সরকারি ছুটি ছাড়া) বিচার কাজ পরিচালিত হবে। এজন্য হাইকোর্ট বিভাগের এখতিয়ার নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে প্রধান বিচারপতির নির্দেশে রবিবার পৃথক দুটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। হাইকোর্ট বিভাগের বেঞ্চ গঠন করে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের স্বাক্ষরে এবং আপিল বিভাগের জন্য আপিল বিভাগের রেজিস্ট্রার মো. বদরুল আলম ভূঞার স্বাক্ষরে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।

আপিল বিভাগে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাবজনিত কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে আগামী ১২ এপ্রিল থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ভার্চুয়ালি আপিল বিভাগের এক নম্বর কোর্ট প্রতি রবিবার, মঙ্গলবার এবং বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে নয়টা থেকে ১২টা পর্যন্ত বিচার কার্যক্রম সীমিত পরিসরে পরিচালিত হবে। এছাড়া ভার্চুয়ালি প্রতি সোমবার ও বুধবার বেলা ১১টা থেকে চেম্বার আদালত অতি জরুরি বিষয়ে শুনানি গ্রহণ করবেন।’

হাইকোর্ট বিভাগে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের বেঞ্চ, বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি শাহেদ নূরউদ্দিনের বেঞ্চ, বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি রাজিক-আল-জলিলের বেঞ্চ এবং বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের বেঞ্চ বসবেন।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমনে বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে গত ৫ এপ্রিল থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত আপিল বিভাগে বিচার কাজ বন্ধ ছিল। তবে জরুরী বিষয় শুনানির জন্য মঙ্গল ও বৃহষ্পতিবার আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতির আদালত খোলা রাখা হয়েছিল। আর হাইকোর্ট বিভাগের চারটি বেঞ্চ খোলা রাখা হয়েছিল। এরইমধ্যে সরকার আগামী ১৪ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের জন্য সর্বাত্মক লকডাউনের ঘোষনা দিয়েছে। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে সপ্তাহে তিনদিন আপিল বিভাগ এবং সপ্তাহের ৫দিনই হাইকোর্ট বিভাগের চারটি বেঞ্চ খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো।



সাতদিনের সেরা