kalerkantho

বুধবার । ২৯ বৈশাখ ১৪২৮। ১২ মে ২০২১। ২৯ রমজান ১৪৪২

বাম গণতান্ত্রিক জোটের সভায় আহ্বান

‘করোনা মোকাবেলায় সর্বদলীয় জাতীয় কমিটি গঠন করুন’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১০ এপ্রিল, ২০২১ ২১:১৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



‘করোনা মোকাবেলায় সর্বদলীয় জাতীয় কমিটি গঠন করুন’

বৈশ্বিক মহামারি করোনা মোকাবেলায় সর্বদলীয় জাতীয় কমিটি গঠনের আহ্বান জানিয়েছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। জোটের কেন্দ্রীয় পরিচালনা পরিষদের সভায় সরকারের অবহেলা, দুর্নীতি ও আত্মতুষ্টির কারণে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু বাড়ছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। সভায় ৬ দফা দাবি তুলে ধরে ওই দাবি আদায়ে আগামী সোমবার সারাদেশে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মানববন্ধন সমাবেশ ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়েছে।

আজ শনিবার রাতে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত ওই সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। জোটের সমন্বয়ক বজলুর রশীদ ফিরোজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউনে যাওয়ার আগে করোনা মহামারীকে জাতীয় দুর্যোগ ঘোষণা করে সর্বদলীয় কমিটি গঠন করে পরিস্থিতি মোকাবেলাসহ ৬ দফা দাবি বাস্তবায়নের আহ্বান জানানো হয়। সেখানে বলা হয়, লকডাউনে শ্রমজীবীদের জন্য এক মাসের খাদ্য ও নগদ ৫ হাজার টাকা দিতে হবে। জেলা-উপজেলায় করোনা পরীক্ষার ল্যাব স্থাপন করে প্রতিদিন কমপক্ষে এক লাখ টেস্ট বিনামূল্যে করতে হবে। জেলা সদরের হাসপাতালে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সাপ্লাই ব্যবস্থা চালু ও কমপক্ষে ২০টি আইসিইউ বেড স্থাপন করতে হবে। সকল নাগরিকের বিনামূল্যে করোনা চিকিৎসা ও ভ্যাকসিন দিতে হবে। চীন, রাশিয়াসহ একাধিক দেশ থেকে টিকা আনার উদ্যোগ নিতে হবে। হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসক-নার্স, টেকনিসিয়ানসহ পর্যাপ্ত জনবল নিয়োগ ও স্বাস্থ্যসেবা কর্মীদের প্রয়োজনীয় সুরক্ষা ও ঝুঁকিভাতা দিতে হবে।

সভায় গৃহীত প্রস্তাবে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু ভয়াবহ বৃদ্ধিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলা হয়, সরকারের অবহেলা, আত্মতুষ্টি ও দুর্নীতির কারণে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুর মিছিল ক্রমাগত বাড়ছে। গত ১৩ মাসের অধিক সময় পেলেও সরকার স্বাস্থ্যখাতে প্রয়োজনীয় অবকাঠামো গড়ে তোলেনি। করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল ও শয্যা সংখ্যা বাড়ানো, হাইফ্লো অক্সিজেন ক্যানুলা ও কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সাপ্লাই ব্যবস্থা চালু এবং আইসিইউ বেড স্থাপন করা হয়নি। বরং এন-৯৫ মাস্ক, পিপিইসহ চিকিৎসসা সরঞ্জামে ব্যাপক দুর্নীতি হয়েছে।

প্রস্তাবে আরো বলা হয়, গত বছরেও বাম জোট সরকারের কাছে আহ্বান জানিয়েছিল, করোনা বৈশ্বিক মহামারী মোকাবেলা শুধু সরকারের একার পক্ষে সম্ভব নয়। এই মহামারীকে জাতীয় দুর্যোগ ঘোষণা করে সর্বদলীয় কমিটি করে মোকাবেলা করতে হবে। কিন্তু সরকার সবকিছুকে দলীয়করণ করার মানসিকতা থেকে সে প্রস্তাবে সাড়া দেয়নি। আমরা আবারও একই দাবি পুনরায় জানাতে চাই, সর্বদলীয় কমিটি করে জাতীয়ভাবে করোনা মোকাবেলায় পদক্ষেপ গ্রহণ করুন।

উক্ত সভায় অংশ নেন বাসদ সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, সিপিবি’র সহকারী সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ জহির চন্দন ও প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুল্লাহ আল কাফি রতন, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক ও পলিটব্যুরো সদস্য আকবর খান, বাসদ (মার্কসবাদী) নেতা মানস নন্দী, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনোয়েদ সাকি ও সম্পাদক বাচ্চু ভুইয়া, কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন নান্নু ও সম্পাদক অধ্যাপক আব্দুস সাত্তার, ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী) সাধারণ সম্পাদক ইকবার কবীর জাহিদ, সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের সভাপতি হামিদুল হক, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির শহীদুল ইসলাম সবুজ।



সাতদিনের সেরা