kalerkantho

বুধবার । ২৯ বৈশাখ ১৪২৮। ১২ মে ২০২১। ২৯ রমজান ১৪৪২

এক সপ্তাহে মৃত্যু বাড়ল ৭১ শতাংশ

♦ ২৪ ঘণ্টায় ৫৮ মৃত্যু, শনাক্ত ৫৬৮৩
♦ কাল বন্ধ হচ্ছে টিকার প্রথম ডোজ
♦ ৮ এপ্রিল দ্বিতীয় ডোজ শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ এপ্রিল, ২০২১ ০২:৪৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



এক সপ্তাহে মৃত্যু বাড়ল ৭১ শতাংশ

পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টার হিসাবে গতকাল শনিবার সকাল পর্যন্ত দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরো ৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন শনাক্ত হয়েছে আরো পাঁচ হাজার ৬৮৩ জন। সুস্থ হয়েছে দুই হাজার ৩৬৪ জন। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত ছয় লাখ ৩০ হাজার ২৭৭ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছে পাঁচ লাখ ৪৯ হাজার ৭৭৫ জন। মারা গেছে ৯ হাজার ২১৩ জন। ২৪ ঘণ্টার হিসাবে শনাক্তের হার ২৩.১৫ শতাংশ। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানা গেছে।

ওই সংবাদ বিজ্ঞপ্তির তথ্য অনুসারে সপ্তাহান্তে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বেড়েছে ৭১.১৪ শতাংশ এবং শনাক্ত বেড়েছে ৬৬.৫৪ শতাংশ। নমুনা বেড়েছে ৪.০৮ শতাংশ ও সুস্থতা বেড়েছে ২০.০৬ শতাংশ। এ ক্ষেত্রে এ বছর দেশের রোগতাত্ত্বিক ১২তম সপ্তাহে (২১-২৭ মার্চ পর্যন্ত) সাত দিনে মৃত্যু হয় ২০১ জনের, শনাক্ত হয় ২৩ হাজার ১০০ জন, নমুনা পরীক্ষা হয় এক হাজার ৭৮ হাজার ৬৮৩টি আর সুস্থ হয় ১৩ হাজার ২০৪ জন। আর গত সপ্তাহে (২৮ মার্চ-৩ এপ্রিল) মৃত্যু হয়েছে ৩৪৪ জনের, শনাক্ত হয়েছে ৩৮ হাজার ৪৭১ জন, সুস্থ হয়েছে ১৫ হাজার ৮৫৩ জন ও নমুনা পরীক্ষা হয় এক লাখ ৮৫ হাজার ৯৬৭টি।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৫৮ জনের মধ্যে পুরুষ ৩৮ জন ও নারী ২০ জন; যাঁদের বয়স ৩১-৪০ বছরের চারজন, ৪১-৫০ বছরের চারজন, ৫১-৬০ বছরের ১৬ জন ও ষাটোর্ধ্ব ৩৪ জন। এঁদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৩৯ জন ঢাকা বিভাগের, ১২ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, তিনজন খুলনার, দুজন বরিশালের, একজন করে রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগের।

এদিকে গতকাল পর্যন্ত করোনার টিকা নিয়েছেন ৫৪ লাখ ৫২ হাজার ৬৩৪ জন। এর মধ্যে গতকাল এক দিনে টিকা নিয়েছেন ৩৯ লাখ আট হাজার ৪৩ জন। আর এ পর্যন্ত টিকা নিতে নিবন্ধন করেছেন ৬৮ লাখ ৮৪ হাজার ৮২৮ জন।

এদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আগের সিদ্ধান্ত অনুসারে আগামীকাল সোমবার করোনার টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া সাময়িক বন্ধ করে দেবে বলে জানিয়েছে। সেই সঙ্গে ৮ এপ্রিল থেকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া শুরু হবে। পরে টিকার জোগানপ্রাপ্তি সাপেক্ষে দ্বিতীয় ডোজের পাশাপাশি প্রথম ডোজ আবার শুরু হবে। গতকাল বিকেলে অধিদপ্তরের এক সভায় এসংক্রান্ত সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা