kalerkantho

শুক্রবার । ১১ আষাঢ় ১৪২৮। ২৫ জুন ২০২১। ১৩ জিলকদ ১৪৪২

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বললেন

‘অ্যাডভোকেট নিপুণের বিরুদ্ধে অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন’

অনলাইন ডেস্ক   

২ এপ্রিল, ২০২১ ১৮:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘অ্যাডভোকেট নিপুণের বিরুদ্ধে অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন’

ফাইল ফটো

অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরীর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ শুক্রবার রাজধানীর গুলশানস্থ বিএনপির চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করেন মির্জা ফখরুল।

মির্জা ফখরুল করোনা পরিস্থিতিতে উদ্বেগ জানিয়ে বলেন, জনগণের সংবিধান ও ন্যায় সংগত অধিকার আদায়ের সংগ্রাম কে এই দখলদারী ফ্যাসিস্ট সরকার দমন করবার জন্য হত্যা, গুম, খুন, নির্যাতন, নিপীড়ন, গ্রেফতার, মিথ্যা মামলা ও  নির্যাতনের পরিমান উদ্বেগ জনক হারে বাড়িয়েই চলেছে।

তিনি অভিযোগ করেন, ‘বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করার জন্য সরকার আবারও মিথ্যা প্রচারণা, মিথ্যা মামলা ও গ্রেফতারের পথ বেছে নিয়েছে। গত কয়েক দিনের সরকারী বাহিনী ও পুলিশ কর্তৃক হত্যা, আওয়ামী এজেন্টদের দ্বারা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাড়ি-ঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা এবং সারাদেশে আওয়ামী সন্ত্রাস সৃষ্টি করার জন্য অডিও নাটক সাজিয়ে বিএনপি নেত্রী নিপুন রায় চৌধুরীকে গ্রেফতার, রিমান্ড নেওয়া ও সারা দেশে পুনরায় হাজার হাজার অজ্ঞাত নামা আসামীর বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে বিএনপি নেতা-কর্মীদের হয়রানী করার হীন পরিকল্পনা করছে।’

তিনি বলেন, ঢাকায়  ৮টি মামলায় কয়েক হাজার আসামী, চট্টগ্রাম (হাটহাজারীতে) কোনো মামলা করা হয়নি। অথচ বিএনপি’র শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ সমাবেশ ও মিছিলে পুলিশের হামলায় প্রায় ৫০ জন আহত এবং চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি’র আহ্বায়ক ডা: শাহাদাতসহ প্রায় ২৪ জনকে গ্রেফতার যার মধ্যে মহিলা হচ্ছেন ১৫ জন এবং ইতিমধ্যে ডা: শাহাদাতসহ প্রায় ১৫ জনকে রিমান্ড নেওয়া হয়েছে এবং ৫ জন মহিলা কারাগারে।

তিনি আরো দাবি করেন, ‘বিএনপি নেতা এ্যাড. নিপুন রায় চৌধুরীকে রায়ের বাজার তার বাসা থেকে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা তার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে তাকে গ্রেফতার করে। ওই দিনেই একটি বেসরকারী টিভি চ্যানেলে জনৈক আরমানের সঙ্গে তার কথোপকথনের একটি বানোয়াট অডিও প্রচার করে যা সম্পূর্ণভাবে প্রযুক্তির মাধ্যমে তৈরী করা, বানোয়াট এবং ভিত্তিহীন। এ্যাডভোকেট নিপুন রায় চৌধুরী একজন কর্মরত আইনজীবী, একজন সক্রিয় মানবাধিকার কর্মী এবং সচেতন রাজনীতিক। কোন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সঙ্গে তার জড়িত থাকার প্রশ্নই উঠতে পারেনা। এটা সম্পূর্নভাবে একটি ষড়যন্ত্রমূলক, সাজানো তৈরী করা এবং তাকে মিথ্যা দোষারপ করার একটি জঘন্য চক্রান্ত।’



সাতদিনের সেরা