kalerkantho

বুধবার । ১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ এপ্রিল ২০২১। ১ রমজান ১৪৪২

প্রথম ধাপের ৩৭১ ইউপিতে বিনাভোটে নির্বাচিত ১৪৯ জন, বাগেরহাট এবারও শীর্ষে

চেয়ারম্যান পদে ৭৩, সদস্য ৬৮ ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডের নারী সদস্য ৮জন বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় ১০৮০ জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার ভোটের মাঠে ১৯১৩৭ জন প্রার্থী

বিশেষ প্রতিনিধি    

২৬ মার্চ, ২০২১ ০১:০৩ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



প্রথম ধাপের ৩৭১ ইউপিতে বিনাভোটে নির্বাচিত ১৪৯ জন, বাগেরহাট এবারও শীর্ষে

প্রথমধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে বিনাভোটে জয়ের সব রেকর্ড ভেঙ্গে গেছে। স্থানীয় নির্বাচনী ইতিহাসের এবারই সর্বোচ্চ ১৪৯জন ভোট ছাড়াই জনপ্রতিনিধি হয়েছেন। এক্ষেত্রে গতবারের মতই শীর্ষে রয়েছে বাগেরহাট।

প্রথম ধাপের ৩৭১টি ইউপির মধ্যে ৭৩ টি ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীরা একক প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হয়ে গেছেন।  এর মধ্যে বাগেরহাট জেলাতেই ৪০টি ইউপিতে এ ঘটনা ঘটেছে। গতবারের নির্বাচনেও বাগেরহাট এবিষয়ে শীর্ষে ছিল। এছাড়া বরিশাল জেলায় ১৪টি, পটুয়াখালিতে ২ টি, পিরোজপুরে ৪টি, ভোলায় ৭টি, গাজীপুরে ২ টি ও চট্টগ্রামে ৪টি ইউপিতে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতার এ ঘটনা ঘটেছে।  চেয়ারম্যান পদ ছাড়াও সাধারন সদস্য পদে ৬৮জন  এবং নারীদের জন্য সংরক্ষিত ওয়ার্ডের সদস্য পদে ৮ জন একই ভাবে বিনাভোটে  নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচন থেকে সরে এসেছেন বা প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেছেন১০৮০জন। তাদের অনেকের ভয়ভীতি দেখিয়ে বা জোরপূর্বক নির্বাচন থেকে সরানোর অভিযোগ আছে। বর্তমানে ভোটের মাঠে রয়েছেন ১৯১৩৭জন। বৈধ প্রার্থীদের মাঝে রিটার্নিং অফিসাররা গতকাল প্রতীক বরাদ্দ করেছেন। প্রতীক পাওয়ার পর থেকে আনুষ্ঠানিক প্রচারণা নেমেছেন প্রার্থীরা।

ইউনিয়ন পরিষদ ছাড়াও আগামী ১১ এপ্রিল ১১ টি পৌরসভার নির্বাচন হতে যাচ্ছে।  এ নির্বাচনেও তিনটি পৌরসভায় চেয়ারম্যান পদে একক প্রার্থী। 

নির্বাচন কমিশন সচিবালয় জানায়, প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচনে  চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত সদস্য এবং সদস্য পদে মোট ২০ হাজার ৪৮৪ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। যাচাই-বাছাই ও প্রত্যাহারের পর চেয়ারম্যান পদে এক হাজর ৪২৯জন, মেম্বার পদে ১৩ হাজার ৫২৮জন এবং সংরক্ষিত মেম্বার পদে চার হাজার ১৮০জন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আছেন। ইউনিয়ন পরিষদের প্রথম ধাপে ৩৯ রাজনৈতিক দলের মধ্যে অংশ নিয়েছে মাত্র ১১টি। বিএনপিসহ নিবন্ধিত বেশিরভাগ রাজনৈতিক দল দলীয় প্রতীকে এ নির্বাচনে অংশ নেয়নি। এ নির্বাচনে বিএনপি দলীয় প্রতীকে অংশ না নেয়ার ঘোষণায় সরকারি দলের বিদ্রোহী প্রার্থীর সংখ্যা বেড়েছে। যদিও বিএনপির প্রার্থীরাও স্বতন্ত্রভাবে এবারের ইউপি ভোটে অংশ নিয়েছেন। ৩০টি ইউপিতে ইভিএমে ভোট হবে। 

বিনাভোটের ৭৩ চেয়ারম্যান : যে ৭৩টি ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে বিনাভোটে নির্বাচিত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে সেই ইউপিগুলো হলো-পটুয়াখালী বাউফলের কালিশূরী, কালাইয়া, বরিশালের বাকেরগঞ্জের দুধল, উজিরপুরের শোলক, মুলাদীর মুলাদী, গৌরনদীর বাটাজোড়, খানজাপুর, বার্থি, চাদশী, মাহিলারা, নলচিড়া, বানারীপাড়ার বিশারকান্দি, ইলুহার, সালিয়াবাকপুর, বানারীপাড়া, উদয়কাঠি। পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ার তেলিখালী, ঝালকাঠি সদরের কেওড়া, নলছিটির নাচনমহল, রাজাপুর গালুয়া, ভোলার বারহানউদ্দিনের গঙ্গাপুর, চরফ্যাশনের চরমাদ্রাজ, চরকলমি, হাজারীগঞ্জ, এওয়াজপুর, জাহানপুর, খুলনা দাকোপের লাউডোবা, বাগেরহাটের ফকিরহাটের বেতাগা, পিলজংগ, ফকিরহাট, নলধা মৌভোগ, মোল্লাহাটের উদয়পুর, চুনখোলা, কোদালিয়া, আটজুড়ি, গাওলা, কুলিয়া, চিতলমারীর হিজলা, শিবপুর, চরবানিয়ারী, সন্তোষপুর, কচুয়ার গজালিয়া, গোপালপুর, রাড়ীপাড়া, বাধাল, রামপালের হুড়কা, মল্লিকের বেড়, বাঁশতলী, রামপাল,ভোজপাতিয়া,মোংলার চাঁদপাই,বুড়িরডাঙ্গা,চিলা,মিঠাখালী,সোনাইলতলা, সুন্দরবন, মোরেলগঞ্জের নিশানবাড়ীয়া, শরণখোলার খোন্তাকাটা, রায়েন্দা, সাউথখালী, সদরের বারুইপাড়া, বেমরতা, বিঞ্চুপুর,  ডেমা, কাড়াপাড়া, খানপুর, রাখালগাছি। গাজীপুর কালিগঞ্জের তুমুলিয়া, মোক্তারপুর, চট্টগ্রাম সন্দ্বীপের বাউরিয়া, সারিকাইত, মগধরা, হারামিয়া। 

২০১৬ সালের প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছিলেন ৫৪ জন। এ সময় প্রথম ধাপে ৭১২টি ইউপিতে নির্বাচন হয়েছিল। সে তুলনায় এবার চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার হার বেশি। সে সময় শতকরা ৭ দশমিক ৫৮ শতাংশ প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছিলেন, এবার যা ১৯ দশমিক ৬৮ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। 

বিনাভোটে ৩ পৌরসভা : আগামী ১১ এপ্রিল লক্ষ্মীপুর-২ আসনের উপনির্বাচন এবং ১১ পৌরসভায়ও ভোটগ্রহণ হবে ইভিএমে। ইতিমধ্যে ৩ পৌরসভায় একক প্রার্থী থাকায় মেয়র পদে ভোট হচ্ছে না। পৌরসভাগুলো হলো-কুমিল্লার লাঙ্গলকোট, চট্টগ্রামের বোয়ালখালী ও নোয়াখালীর কবিরহাট। বাকি ৮টি পৌরসভায় মেয়র-কাউন্সিলর পদে ভোট হবে। সেগুলো হলো- ঝালকাঠির সদর, ফরিদপুরের ভাঙ্গা, ফেনীর সোনাগাজী, কক্সবাজারের মহেষখালী ও চকরিয়া, দিনাজপুরের সেতাবগঞ্জ, পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ ও যশোরের নওয়াপাড়া (অভয়নগর)।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা