kalerkantho

শুক্রবার । ৪ আষাঢ় ১৪২৮। ১৮ জুন ২০২১। ৬ জিলকদ ১৪৪২

বিশেষজ্ঞ মত

করোনা হলে বয়স্ক বা জটিল রোগীদের হাসপাতাল লাগবে

অধ্যাপক ডা. খান আবুল কালাম আজাদ   

২৪ মার্চ, ২০২১ ০২:৩৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



করোনা হলে বয়স্ক বা জটিল রোগীদের হাসপাতাল লাগবে

গত বছর আর এবারের মধ্যে করোনাভাইরাসের উপসর্গের কোনো পার্থক্য নেই। ফলে চিকিৎসার ক্ষেত্রে গত বছর যেমন এক ধরনের দিশাহারা অবস্থা ছিল বা কী চিকিৎসা ব্যবস্থাপনা চালাতে হবে, কোন ওষুধ কিভাবে চলবে না চলবে, তা নিয়ে অনেক হা-হুতাশ ছিল; এত দিনে যেহেতু একটা সেট-আপ বা গাইডলাইন দাঁড়িয়ে গেছে, তাই এখন আর আগের মতো অত অস্থিরতার বিষয় নেই।

বরং আমরা এখন সহজেই বলে দিতে পারি—কারো মধ্যে করনোভাইরাসের উপসর্গ দেখা দিলে প্রথমেই তাকে কোয়ারেন্টিন ও আইসোলেশনে যেতে হবে এবং পরীক্ষা করাতে হবে। পরীক্ষায় পজিটিভ রেজাল্ট এলে এরপর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজটি হচ্ছে, হাতের কাছে অবশ্যই একটি পালস অক্সিমিটার রাখতে হবে এবং নিয়মিত তা ব্যবহার করে অক্সিজেন সেচুরেশন পরিমাপ করে দেখতে হবে। যদি অক্সিজেন লেভেল কমে যায়, অর্থাৎ ৯০-এর নিচে নিমে যায় এবং সেটি কন্টিনিউ করতে থাকে, তবে তাকে হাসপাতালে যেতে হবে।

এ ছাড়া যদি কারো আগে থেকেই কোনো জটিল রোগ থেকে থাকে, তবে তাকেও হাসপাতালে যেতে হবে; আর যদি বয়স্ক ব্যক্তিরা করোনায় আক্রান্ত হন, তাঁদের শুরুতেই হাসপাতালে নিতে হবে তেমন কোনো জটিলতা দেখা না গেলেও। এ ছাড়া অন্যদের ক্ষেত্রে মৃদু উপসর্গ দেখা দিলে, বিশেষ করে জ্বর-কাশি হলে সে অনুসারে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে সাধারণ প্যারাসিটামল, অ্যান্টিহিস্টামিন বা কাশির ওষুধ খেলেই চলবে। অক্সিমিটারে যদি আট-দশ দিন নরমাল অক্সিজেন লেভেল দেখা যায়, তবে আর দুশ্চিন্তার কোনো কারণ থাকবে না।

আর যাদের হাসপাতালে যেতে হবে, তাদের কী করতে হবে, সেটা চিকিৎসকরাই ব্যবস্থা করবেন। কার কতটুকু অক্সিজেন দরকার হবে, তাকে রক্ত তরল রাখার ওষুধ দিতে হবে কি হবে না, কখন ফুসফুসের সংক্রমণ কমানোর জন্য কী ওষুধ দিতে হবে, সেটাও তাঁরাই দেখবেন। যাদের অক্সিজেনে কাজ হবে তাদের ভেন্টিলেটরে নেওয়ার দরকার হবে না।

এ ক্ষেত্রে একটি বিষয় বলে রাখা ভালো, গত বছর অনেক ধরনের ওষুধ নিয়ে নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়েছে, যা শেষ পর্যন্ত ধোপে টেকেনি। ফলে ওই সব ওষুধ এখন আর ব্যবহারের গুরুত্ব নেই। বৈজ্ঞানিকভাবে সফল কোনো প্রমাণ এখনো অনেক ওষুধের ক্ষেত্রেই পাওয়া যায়নি।

এ ছাড়া আরেকটি বিষয় হচ্ছে, যাঁরা করোনার টিকা নেননি কিন্তু বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত আছেন, তাঁদের আক্রান্ত থাকা অবস্থায় টিকা নেওয়ার দরকার নেই। বরং তাঁদের নেগেটিভ আসার দুই সপ্তাহ পরে তাঁরা টিকা নিতে পারবেন।

খান আবুল কালাম আজাদ : মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ



সাতদিনের সেরা