kalerkantho

শনিবার । ২৫ বৈশাখ ১৪২৮। ৮ মে ২০২১। ২৫ রমজান ১৪৪২

বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা, হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে দুদকের আবেদন

শুনানি ২৮ মার্চ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ মার্চ, ২০২১ ১৫:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা, হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে দুদকের আবেদন

ফাইল ফটো

দুর্নীতি মামলার আসামি বা সন্দেহভাজন কোনো ব্যক্তির বিদেশ যাবার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার এখতিয়ার নিজেদের কাছেই রাখতে চায় দুদক। এ কারণে এবিষয়ে হাইকোর্টের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন(দুদক)। আবেদনে দুদক হাইকোর্টের সিদ্ধান্ত স্থগিত চেয়েছে। একইসঙ্গে নরসিংদীর ব্যবসায়ী আতাউর রহমানের বিদেশ যাবার ক্ষেত্রে হাইকোর্টের রায় স্থগিত চাওয়া হয়েছে। আগামী ২৮ মার্চ আপিল বিভাগের অবকাশকালীন চেম্বার বিচারপতির আদালতে এ আবেদনের ওপর শুনানি হবে বলে জানিয়েছেন দুদকের আইনজীবী অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান।

হাইকোর্ট গত ১৬ মার্চ নরসিংদীর আতাউর রহমান ওরফে সুইডেন আতাউর রহমানের বিদেশ যাবার ওপর দুদকের নিষেধাজ্ঞা অবৈধ বলে রায় দেন। এই রায়ে আদালত বলেছেন, বিদেশ যাবার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার বিষয়ে দুদকের সুনির্দিস্ট আইন বা বিধি নেই। এ কারণে এবিষয়ে দ্রুত সুনির্দিস্ট আইন বা বিধিমালা করা প্রয়োজন। তাই আশা করছি, এবিষয়ে দুদক বা সংশ্লিস্ট মন্ত্রণালয় আইন বা বিধি করার বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে। আদালত আরো বলেন, বিদেশ যাবার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার বিষয়ে যতদিন আইন বা বিধি প্রনয়ন না করা হচ্ছে, ততদিন সংশ্লিস্ট বিশেষ জজ আদালতের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে।

হাইকোর্টের এই রায় স্থগিত চেয়ে দুদক সোমবার আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতির আদালতে আবেদন করে। এ আবেদন গতকাল শুনানির জন্য উপস্থাপিত হলে আতাউর রহমানের পক্ষে অ্যাডভোকেট অন রেকর্ড(এওআর) হাসিনা আক্তার আদালতে সময়ের আবেদন জানান। আদালত আগামী ২৮ মার্চ শুনানির জন্য দিন ধার্য করেন। একইসঙ্গে এসময় পর্যন্ত আতাউর রহমান বিদেশ যাবেন না বলে ওই আইনজীবী আদালতকে নিশ্চিত করেন।

জানা যায়, দুর্নীতি দমন কমিশন(দুদক) ২০২০ সালের ২৪ আগস্ট আতাউর রহমানের সম্পদের তথ্য চেয়ে নোটিশ দেয়। এই নোটিশের পর ২২ অক্টোবর তিনি তার সম্পদের তথ্য দুদকে দাখিল করেন। দুদক সম্পদের তথ্য পেয়ে অনুসন্ধানে নামে। এই অনুসন্ধানকালে গতবছর ২০ ডিসেম্বর আতাউর রহমানের বিদেশ যাবার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়ে পুলিশের বিশেষ শাখায় (এসবি) চিঠি দেয় দুদক। এ অবস্থায় এই চিঠির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট আবেদন করেন আতাউর রহমান। এ আবেদনে হাইকোর্ট গত ৪ ফেব্রুয়ারি রুল জারি করেন। এ রুলের ওপর চূড়ান্ত শুনানি শেষে গত ১৬ মার্চ রায় দেন হাইকোর্ট।



সাতদিনের সেরা