kalerkantho

বুধবার । ২৮ বৈশাখ ১৪২৮। ১১ মে ২০২১। ২৮ রমজান ১৪৪২

'তিস্তা চুক্তি নিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের কোনো ব্যর্থতা নেই'

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ মার্চ, ২০২১ ১৬:৫৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'তিস্তা চুক্তি নিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের কোনো ব্যর্থতা নেই'

তিস্তা চুক্তি নিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের কোনো ব্যর্থতা নেই মন্তব্য করে তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, 'তিস্তা চুক্তির ব্যাপারে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে আমরা অনেক দূর এগিয়েছি। কিন্তু ভারতের সংবিধান অনুযায়ী রাজ্য সরকারের অনুমতি লাগে। যেহেতু এটি ভারতের একটি রাজ্য এবং বাংলাদেশ সরকারের মধ্যে, এখানে অবশ্যই রাজ্য সরকারের অনুমোদন লাগে। তাই এখানে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের কোনো ব্যর্থতা নেই। তাদের যে একাগ্রতা, সেটি আছে।'

মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে তথ্য মন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তন বিষয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

তিস্তা চুক্তি নিয়ে সরকার ধূম্রজালে রেখেছে—বিএনপির এমন বক্তব্যের বিষয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, 'রাজ্য সরকারের অনুমোদন পেলে চুক্তি হবে। এটি তারাও (বিএনপি) বোঝে, বুঝেও না বোঝার ভান করে। এটি অপ্রাসঙ্গিক হলেও প্রসঙ্গ বানানোর চেষ্টা করছে। আসলে বিএনপি কোনো ইস্যু খুঁজে পাচ্ছে না বলে খড়কুটো ধরে চেষ্টা করছে, এ ছাড়া অন্য কিছুই নয়।'

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, 'এ জন্য সরকারকে বিএনপির একটি অভিনন্দন দেওয়া প্রয়োজন ছিল, বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রীকে। প্রধানমন্ত্রী মানবিক দিক বিবেচনা করে খালেদা জিয়াকে তাঁর শাস্তি ছয় মাসের জন্য স্থগিত রেখেছেন, কিন্তু বিএনপি ধন্যবাদ দিতে ব্যর্থ হয়েছে। আসলে বিএনপি ধন্যবাদ দেওয়ার সংস্কৃতি লালন করে না। কাউকেই ধন্যবাদ দিতে পারে না।'

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশ সফরে আসছেন, সেখানে সীমান্ত হত্যা নিয়ে কোনো আলোচনা থাকবে কি না—এমন প্রশ্নের জবাবে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সীমান্ত হত্যা নিয়ে অনেক আলোচনা হয়েছে। ইতিমধ্যে সীমান্ত হত্যা অনেক কমেও গেছে। আগে যে সীমান্ত হত্যা হতো, সেটি এখন অনেক কমে গেছে। তবে আমরা চাই সীমান্ত হত্যা শূন্যের কোঠায় আসুক। এটি নিয়ে সব সময় দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মধ্যে আলোচনা হচ্ছে, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় পর্যায়েও আলোচনা হচ্ছে।



সাতদিনের সেরা