kalerkantho

রবিবার। ৫ বৈশাখ ১৪২৮। ১৮ এপ্রিল ২০২১। ৫ রমজান ১৪৪২

এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে শিক্ষামন্ত্রীর শোক

অনলাইন ডেস্ক   

৪ মার্চ, ২০২১ ১০:৪৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে শিক্ষামন্ত্রীর শোক

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা হোসেন তৌফিক ইমাম (এইচ টি ইমাম)-এর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা.দীপু মনি এমপি।

মন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) এক শোকবার্তায় বলেন, 'এইচ টি ইমাম দেশপ্রেম, বীরত্ব, মেধা ও অনন্য প্রতিভা এবং প্রগতিশীল চিন্তার জন্য নিজেকে একজন অনুকরণীয় ব্যক্তিত্বের আসনে অধিষ্ঠিত করেছেন। মুক্তিযুদ্ধকালে পাকিস্তান সরকারের চাকরিতে থাকা অবস্থায় পাকিস্তানের প্রতি আনুগত্য ত্যাগ করে মুক্তিযুদ্ধে যোগ দিয়ে শুধু সাহসিকতার দৃষ্টান্তই স্থাপন করেননি, তিনি মুক্তিযুদ্ধের সময় প্রবাসী সরকারের মন্ত্রিপরিষদ সচিবের দায়িত্ব পালন করে প্রবাসী সরকারের কর্মকাণ্ডকে গতিশীল করেছিলেন। স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম মন্ত্রিপরিষদ সচিব হিসেবেও তিনি দেশ পুনর্গঠনে বঙ্গবন্ধু সরকারের প্রশাসনিক কর্মকাণ্ডকে গতিশীল করতে ভূমিকা রেখেছেন।'

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, 'এইচটি ইমামের মৃত্যুতে দেশ একজন প্রতিভাবান ব্যক্তিত্বকে হারালো, আর আমরা হারিয়েছি একজন অতি আপনজন-অভিভাবককে। মুক্তিযুদ্ধসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তাঁর অবদান তাঁকে অম্লান করে রাখবে যুগ যুগ মহাকাল। তাঁর মৃত্যুতে যে শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে তা কোনোদিনও পূরণ হবার নয় বলে উল্লেখ করেন ডা.দীপু মনি।

শিক্ষামন্ত্রী মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) রাতে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান এইচ টি ইমাম। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। তিনি ফুসফুস, কিডনি, হার্টের রোগসহ বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছিলেন। প্রায় মাসখানেক ধরে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি।

মুক্তিযুদ্ধের সময় প্রবাসী সরকারের মন্ত্রিপরিষদ সচিবের দায়িত্ব পালন করা এইচ টি ইমাম ২০১৪ সাল থেকে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। ১৯৭১ সালে পাকিস্তান সরকারের চাকরিতে থাকা অবস্থায় পাকিস্তানের প্রতি আনুগত্য ত্যাগ করে তিনি মুক্তিযুদ্ধে যোগ দিয়েছিলেন। স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম মন্ত্রিপরিষদ সচিবও হন তিনি।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা