kalerkantho

শনিবার । ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৪ রজব ১৪৪২

১৫ ফেব্রুয়ারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার দাবি

কিন্ডারগার্টেন ও সমমান স্কুল রক্ষা জাতীয় কমিটির

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৭:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১৫ ফেব্রুয়ারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার দাবি

প্রধানমন্ত্রীর কাছে ১৪ ফেব্রুয়ারির পর এক দিনও ছুটি বৃদ্ধি না করে ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবী করেছে কিন্ডারগার্টেন ও সমমান স্কুল রক্ষা জাতীয় কমটি। অন্যথায় নিজেদের দায়িত্বে স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন সংগঠনটির সদস্যসচিব জিএম জাহাঙ্গীর কবির রানা। এ বিষয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতাও কামনা করেন।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসনে চৌধুরী হলে এক সংবাদ সম্মলেনে তিনি এ ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন কমিটির আহবায়ক মিজানুর রহমান সরকার। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সদস্য ইস্কান্দার আলী হাওলাদার, উপদেষ্টা নুরুজ্জামান কায়েস, যুগ্ম আহবায়ক এম.এইচ বাদল, উপদেষ্টা রেজাউল হক, প্রধান সমন্বয়কারী মোহাম্মদ আবদুল অদুদ, সদস্য শান্তা ফারজানা, এম এ মান্নান মনির ও লায়ন তাজুল ইসলাম সহ কমিটির শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ। সংবাদ সম্মেলনটি সঞ্চালনা করেন জয়নুল আবেদিন জয়।

লিখিত বক্তব্যে জিএম জাহাঙ্গীর কবির রানা বলেন, সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি দেশের প্রায় ৪০ হাজার কিন্ডারগার্টেন ও সমমান  স্কুল দেশের শিক্ষাব্যবস্থায় গুরুত্বর্পূণ অবদান রেখে চলছে। প্রাথমিক শিক্ষায় প্রধানমন্ত্রীর যে সাফল্য তার প্রায় অর্ধেক অবদান কিন্ডারগার্টেন সমূহের। করোনা মহামারির কারণে সরকারি সিদ্ধান্তে এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দীর্ঘ ১১ মাস ধরে বন্ধ রয়েছে। এমতাবস্থায় সরকারি প্রাথমিক  শিক্ষকরা সকল ধরনের সুযোগ-সুবিধা পেলেও কিন্ডারগার্টেনের প্রায় ১০ লক্ষ শিক্ষক-কর্মচারী তাদের বেতন ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত। তদুপরি বেশিরভাগ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ভাড়াবাড়িতে হওয়ায় বাড়ি ভাড়া ও অন্যান্য খরচ বহন করতেই প্রতিষ্ঠান মালিক/পরিচালকদের অবস্থা নাজুক। আর্থিক চাপ সইতে না পারায় বহু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে গেছে, যা জাতি হিসেবে আমাদের জন্য লজ্জাজনক।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা