kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৯ বৈশাখ ১৪২৮। ২২ এপ্রিল ২০২১। ৯ রমজান ১৪৪২

রায় শুনে অঝোরে কাঁদলেন দীপনের স্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক   

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৬:২৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রায় শুনে অঝোরে কাঁদলেন দীপনের স্ত্রী

দীপন হত্যা মামলার রায় শোনার সঙ্গে সঙ্গে কান্নায় ভেঙে পড়েন তার স্ত্রী ডা. রাজিয়া রহমান। আজ বুধবার সকালে আদালতে আসেন ডা. রাজিয়া রহমান, তার সাথে আসেন আতিকা রুমা ও সৈয়দ হাসান ইমামের মেয়ে সৈয়দা তানজুমা ইমাম। কেঁদেছেন তারাও। রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে রাজিয়া রহমান পলাতক আসামি মেজর জিয়া ও আকরামকে দ্রুত গ্রেপ্তার করে রায় কার্যকরের দাবি জানান।

ঢাকার একটি আদালত আজ জাগৃতি প্রকাশনীর মালিক ফয়সাল আরেফিন দীপন হত্যা মামলায় মেজর সৈয়দ জিয়াউল হকসহ আট আসামিকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছেন।

সেনাবাহিনীর চাকরিচ্যুত মেজর সৈয়দ জিয়াউল হকসহ মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত ৮জনই নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের (এবিটি) সদস্য বলে আদালত সূত্রে জানা যায়। বুধবার ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমান এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

রায় উপলক্ষে বুধবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে কাশিমপুর কারাগার থেকে ছয় আসামিকে আদালতে আনা হয়। এ সময় তাদের কোর্ট হাজতে রাখা হয়। বেলা ১১টার পরে তাদের ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হয়। আসামিদের প্রত্যকের গায়ে ছিল বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট, মাথায় হেলমেট।

রায় ঘোষণা উপলক্ষে আদালত প্রাঙ্গণে আজ নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এছাড়াও আদালত এলাকায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কড়া নজরদারি ছিল।

আদালত সূত্র জানায়, ২৪ জানুয়ারি সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মুজিবুর রহমান রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণার জন্য এদিন ধার্য করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা