kalerkantho

রবিবার। ২৮ চৈত্র ১৪২৭। ১১ এপ্রিল ২০২১। ২৭ শাবান ১৪৪২

টিএসসি না ভেঙে নতুন ভবন সংযোজনের নকশা উপস্থাপন

‘এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি’

অনলাইন ডেস্ক   

৩১ জানুয়ারি, ২০২১ ২১:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টিএসসি না ভেঙে নতুন ভবন সংযোজনের নকশা উপস্থাপন

পুরো টিএসসি ভাঙা হচ্ছে না। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রের (টিএসসি) পুরো স্থাপনা না ভেঙে ১০ তলা একটি নতুন ভবন সংযোজন করার নকশা তৈরি করেছে গণপূর্ত অধিদপ্তর। আজ রবিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে গণপূর্ত অধিদপ্তরের এক সভায় এই নকশা উপস্থাপন করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলী আবুল কালাম সিকদার গণমাধ্যমকে বলেন, টিএসসি নিয়ে গণপূর্তের সঙ্গে দ্বিতীয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতবারের পরামর্শ অনুযায়ী টিএসসি না ভেঙে নকশা উপস্থাপন করেছে তারা। আর কিছুটা সংযোজন আছে। সুইমিং পুলের জায়গায় একটি ভবন নির্মাণ করা হবে। এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। চার সপ্তাহ পর আরেকটি সভা অনুষ্ঠিত হবে।

উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ গণমাধ্যমকে বলেন, টিএসসির সংস্কার করা হবে। আর সুইমিংপুলের জায়গাটিতে ১০তলা ভবনের নকশা দেখিয়েছেন গণপূর্তের প্রকৌশলীরা। টিএসসির বর্তমান যে অবকাঠামো সেটির সংস্কার করা হবে। প্রয়োজনের তুলনায় অডিটোরিয়াম আরেকটু বড় করা হবে।’

সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী আবুল কালাম সিকদারসহ স্থাপত্যবিষয়ক কর্মকর্তারা অংশ নেন। অপরদিকে, গণপূর্তের অতিরিক্ত প্রকৌশলীসহ একটি টিম অংশ নেন।

১৯৬০ এর দশকে গ্রিক স্থপতি কনস্ট্যান্টিন ডক্সিযাডেস বাংলাদেশের গ্রামীণ বসতির আদলে বর্তমান টিএসসির নকশা করেন। ১৯৬৪ সালে নির্মাণকাজ শেষ হয়। সম্প্রতি টিএসসি চত্বর ভেঙে নতুনরূপে বহুতল ভবন দৃষ্টিনন্দন স্থাপনা করার ঘোষণা দেওয়া হয়। এতে শিক্ষকদের কেউ কেউ টিএসসির দৃষ্টিনন্দন ভবনটি ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা