kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৯ ফাল্গুন ১৪২৭। ৪ মার্চ ২০২১। ১৯ রজব ১৪৪২

ঢাকা বিভাগের ৫ শ্রেষ্ঠ জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঢাকা বিভাগের ৫ শ্রেষ্ঠ জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান

ঢাকা বিভাগীয় পর্যায়ে নির্বাচিত পাঁচ জন শ্রেষ্ঠ জয়িতাকে সম্মাননা দেওয়া হয়েছে।

নির্বাচিত শ্রেষ্ঠ পাঁচ জয়িতা হলেন —অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী নারী ক্যাটাগরিতে ঢাকার মিরপুরের আয়শা জেসমিন; শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী নারায়ণগঞ্জের ড. জেবউননেছা; সফল জননী ক্যাটাগরিতে শরিয়তপুরের ছৈয়দা রিজিয়া বেগম; নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যেমে জীবন শুরু করা টাঙ্গাইলের রবিজান এবং সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় ঢাকা জেলার দোহারের লাইলা বেগম।

বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) রাজধানীর বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তন থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেন, জয়িতা মানে জয়ী নারী। জীবন সংগ্রামে অপ্রতিরোধ্য ও আত্নপ্রত্যয়ী নারীর নাম জয়িতা। তারা দেশের নারীর উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নের অনন্য উদাহরণ। কেবল নিজের অদম্য ইচ্ছাকে সম্বল করে চরম প্রতিকূলতাকে জয় করেছে। তারা পরিবার, সমাজ ও দেশের গর্ব। সরকার তাদের অসামান্য অর্জনের যথাযথ স্বীকৃতি প্রদান করছে। যার মাধ্যমে অন্যান্য নারীরাও অনুপ্রাণিত হচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশের নারীদের জন্য বাড়তি সুযোগের দরকার নেই। তাদের জন্য প্রয়োজন সমতা সৃষ্টি করা। আজ ই-কমার্সে নারীদের জয়জয়কার। দেশে যত অনলাইন ও ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আছে, তার শতকরা ৮০ ভাগ পরিচালনা করছে নারীরা। পুরস্কারপ্রাপ্ত জয়িতারা সমাজে নারীর ক্ষমতায়নের উদাহরণ সৃষ্টি করেছে।

অনুষ্ঠানে ঢাকা বিভাগের শ্রেষ্ঠ জয়িতাদের সম্মাননা ক্রেস্ট, সনদ ও পুরস্কারের নগদ অর্থ প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কাজী রওশন আক্তার। ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার মো. খলিলুর রহমান শিল্পকলা একাডেমিতে সভাপতিত্ব করেন। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা, ঢাকার জেলা প্রশাসকসহ বিভাগীয় পর্যায়ের কর্মকর্তারা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা