kalerkantho

শনিবার । ২১ ফাল্গুন ১৪২৭। ৬ মার্চ ২০২১। ২১ রজব ১৪৪২

কর্মশালায় এবি পার্টির নেতারা

'ক্ষমতাসীন নেতারা একে অপরকে 'রাজাকার' বলে গালি দিচ্ছে'

অনলাইন ডেস্ক   

২৩ জানুয়ারি, ২০২১ ২১:০৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'ক্ষমতাসীন নেতারা একে অপরকে 'রাজাকার' বলে গালি দিচ্ছে'

এবি পার্টি ফেনী জেলার উদ্যোগে স্থানীয় মিজান রোডস্থ একটি কমিউনিটি সেন্টারে আজ সকাল ১০টায় উপজেলা সংগঠকদের নিয়ে এক রাজনৈতিক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। 

কর্মশালায় প্রধান বক্তা এডভোকেট তাজুল ইসলাম বলেন ক্ষমতাসীন দলের নেতারা তাদের বিরুদ্ধের সবাইকে এতদিন রাজাকার তকমা দিয়ে এসেছে। এখন তারা নিজেরাই নিজেদের এক নেতা অপর নেতাকে রাজাকার-স্বাধীনতা বিরোধী বলে গালি দিচ্ছে। একইভাবে আদর্শবাদী রাজনীতি যারা করে তারা তাদের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে কাফের, মুনাফেক, পঁচা ডিম বলে প্রতিহিংসা ছড়াচ্ছে। এরা একই মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ। এগুলো সবই তাদের অপরাজনীতির ফসল। এবি পার্টি এই অপ রাজনীতির অবসান ঘটাতে চায়।

দিনব্যাপী রাজনৈতিক কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট চিকিৎসক ও শিল্পপতি ডা. শামসুদ্দিন ইলিয়াছ। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এবি পার্টির আহ্বায়ক, সাবেক সচিব এ.এফ.এম সোলায়মান চৌধুরী, প্রধান বক্তা ছিলেন পার্টির যুগ্ন আহবায়ক এডভোকেট তাজুল ইসলাম, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সদস্য সচিব মজিবুর রহমান মঞ্জু ও যুগ্ন সদস্য সচিব ব্যরিস্টার আসাদুজ্জামান ফুয়াদ। 

এবি পার্টি ফেনী জেলার সংগঠক প্রকৌশলী শাহ আলম বাদল ও জেলা সমন্বয়ক মু. ফজলুল হকের সঞ্চালনায় কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন শিক্ষাবিদ  জিলানী মজুমদার, নুরুল কবির, আফলাতুন বাকী, মামুন আনসারী, ওয়াসিউর রহমান খসরু, মোজাম্মেল হোসাইন প্রমুখ। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এএফএম সোলায়মান চৌধুরী বলেন, দেশের ক্রান্তিলগ্নে হতাশার মধ্যে আশার আলো জ্বালাতে আমরা নতুন রাজনীতি নিয়ে মাঠে নেমেছি। খেদমত ও সমস্যা সমাধানের মাধ্যমে এবি পার্টি দেশকে কল্যান রাষ্ট্রে পরিণত করতে চায়।

কর্মশালার এক পর্যায়ে জেলার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবি পার্টিতে যোগদান করেন। যোগদানকারী ব্যক্তিবর্গের মাঝে রয়েছেন প্রাক্তন সেনা কর্মকর্তা ও জার্তীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য জনাব শেখ ফরিদ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জাফর আহাম্মদ, প্রাক্তন সেনা কর্মকর্তা নুরুল আমীন ছাদু, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আবুবকর সিদ্দিকী ভূঞা, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মনির আহাম্মদ, ইঞ্জিনিয়ার মনির হোসাইন, ডা. মনির আহাম্মদ, আব্দুল্লাহ আনসারী, প্রাক্তন ছাত্র ইউনিয়ন নেতা মুসফিকুর রহমান প্রমুখ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা