kalerkantho

শনিবার । ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৪ রজব ১৪৪২

ফুটপাত দখলমুক্ত করতে মিরপুরে ডিএনসিসি'র দ্বিতীয় দিনের অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ জানুয়ারি, ২০২১ ১২:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফুটপাত দখলমুক্ত করতে মিরপুরে ডিএনসিসি'র দ্বিতীয় দিনের অভিযান

রাজধানীর মিরপুর ১১ নম্বর এর ফুটপাত দখলমুক্ত করতে উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিচালনা করছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি)। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সফিউল আজমের নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়। মিরপুর সেকশন ১১ এর ৩ নম্বর এভিনিউয়ের ৪ নম্বর রোডে চলছে এই অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান, যা চলবে সন্ধ্যা পর্যন্ত। তবে আজকের এ অভিযানে স্থানীয়দের কাছ থেকে কোনো ধরনের বাধা-বিপত্তি আসেনি। তবে ডিএনসিসির পক্ষ থেকে সতর্কতা হিসেবে এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত কিছু সদস্য নিয়োগ করা হয়েছে। 

গতকালের অভিযানে বাদ পরে যাওয়া অবৈধ স্থাপনাগুলো ভাঙা হচ্ছে। পাশাপাশি গতকালকের ভবন ভাঙার অবশিষ্টাংশ সরিয়ে নিতে কাজ করছে ডিএনসিসি।

ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম উচ্ছেদ অভিযান পরিদর্শনের করেন। তিনি বলেন, ফুটপাতের অবৈধ দখল উচ্ছেদ করে এখানে সর্বোচ্চ ৭৫ ফুট এবং সর্বনিম্ন ৬০ ফুট চওড়া রাস্তা করা হবে। দখলদারদের জন্য কোনো নোটিশ নেই। যেকোনো সময় তাদের উচ্ছেদ করা হবে। উচ্ছেদ অভিযানে কেউ বাধা দিলে তা প্রতিহত করা হবে। মেয়র আরো বলেন, রাস্তার ওপরে যেসব বৈদ্যুতিক খুঁটি আছে তা সরিয়ে নেওয়ার জন্য ডেসকোর সাথে কথা হয়েছে। আমরা একটি পরিকল্পিত নগরী তৈরি করতে কাজ করে যাচ্ছি।

এদিকে, উচ্ছেদ অভিযান চলার কারণে সামনের রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। এছাড়া উচ্ছেদের ফলে পুরো এলাকা ধুলা এবং বালুতে অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে পড়েছে।

উল্লেখ্য, একই স্থানে গতকাল বৃহস্পতিবারও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করে ডিএনসিসি। তবে উচ্ছেদ অভিযানের শুরু থেকেই স্থানীয় বাসিন্দারা এতে বাধা দেয়। এমনকি  রাস্তায় অভিযান পরিচালনাকারী দলকে আটকেও দেয়। এক পর্যায়ে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে শুরু করে স্থানীয়রা। ফলে পিছু হটে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। পরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে মেয়র আতিকুল ইসলাম ঘটনাস্থলে আসেন। তার উপস্থিতিতে এলাকায় আবারো উচ্ছেদ অভিযান শুরু করে ডিএনসিসি।

গতকাল প্রথম দিনের অভিযানে প্রায় চারশ ছোট বড় স্থাপন গুঁড়িয়ে দেয় ঢাকা উত্তর সিটি। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা