kalerkantho

শনিবার । ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৪ রজব ১৪৪২

বইমেলার তারিখ নিয়ে কাটেনি অনিশ্চয়তা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ জানুয়ারি, ২০২১ ০৩:১৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বইমেলার তারিখ নিয়ে কাটেনি অনিশ্চয়তা

এ বছর অমর একুশে বইমেলার আয়োজন নিয়ে অনিশ্চয়তা এখনো কাটেনি। আয়োজক সংস্থা বাংলা একাডেমি, অংশীজন এবং সরকারের প্রতিনিধিদের নিয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকের পরও মেলার তারিখ নিশ্চিত করা হয়নি।

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ জানিয়েছেন, বইমেলা শুরু করার জন্য প্রস্তাবিত ২০ ফেব্রুয়ারি, ১৭ মার্চ ও ২৭ মার্চ—এই তিনটি তারিখ প্রধানমন্ত্রীকে জানানো হবে। তিনি যে তারিখ নির্ধারণ করবেন, সে দিনই মেলা শুরু হবে। তিনি বলেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে ১ ফেব্রুয়ারি থেকে মেলা শুরু করা সম্ভব হচ্ছে না। ফেব্রুয়ারিতে করোনার ভ্যাকসিন দেশে এলে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসবে বলে আশা করছি। করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না এলে মেলা আরো পেছাতে পারে।

গতকাল রবিবার দুপুর দেড়টায় বাংলা একাডেমির কবি শামসুর রাহমান সভাকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এসব কথা বলেন। সংবাদ সম্মেলনে আরো ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব বদরুল আরেফীন ও বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী।

হাবীবুল্লাহ সিরাজী বলেন, ‘আমরা মেলা স্থগিত করেছি, বাতিল করিনি। ফেব্রুয়ারি মাসে ভার্চুয়াল বইমেলা আয়োজনের যে সিদ্ধান্ত ছিল সেটাও হচ্ছে না। মেলা যখনই হোক শারীরিক উপস্থিতিতেই হবে। মেলা শুরু করতে দেরি হলে ঝড়-বৃষ্টির আশঙ্কার বিষয়ে তিনি বলেন, রোজার পরে মেলা হলে আবহাওয়ার বিষয়টি মাথায় রেখেই মেলার অবকাঠামো তৈরি করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনের পর বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির সভাপতি ফরিদ আহমেদ যত দ্রুত সম্ভব মেলা শুরুর পক্ষে। তাঁর মতে, মেলা শুরুর তারিখ ৭ মার্চের পর হলে ঝড়বৃষ্টির আশঙ্কা থেকে যায়। বাংলাদেশ পুস্তক বিক্রেতা ও প্রকাশক সমিতির ঢাকা মহানগর অংশের সভাপতি মাজহারুল ইসলাম বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন বলে আমরা শুনেছি। আমরা আশা করব প্রধানমন্ত্রী মার্চের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানাবেন। মার্চের পর বৈরী আবহাওয়ায় আয়োজন করা সম্ভব নয়।’

প্রতি বছর ১ ফেব্রুয়ারি থেকে অমর একুশে বইমেলা শুরু হলেও এবার করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে মেলা স্থগিত করেছে আয়োজক প্রতিষ্ঠান বাংলা একাডেমি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা