kalerkantho

সোমবার । ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭। ১ মার্চ ২০২১। ১৬ রজব ১৪৪২

মির্জা ফখরুল বললেন

শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা বিরাজ করছে দেশে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ ডিসেম্বর, ২০২০ ০২:৪১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা বিরাজ করছে দেশে

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, গণতন্ত্রের নেত্রী খালেদা জিয়াকে বেআইনিভাবে মিথ্যা মামলা দিয়ে আটক করে রাখা হয়েছে। ৩৫ লাখ মানুষের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা হয়েছে। পাঁচ শতাধিক মানুষ গুম হয়ে গেছে। গণতন্ত্রকামী হাজার হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। সব মিলে দেশে শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা বিরাজ করছে। এ থেকে বেরিয়ে আসার জন্য জনগণ আজকের দিনে নতুন করে শপথ নিচ্ছে। তারা আরেকটি মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে দেশকে মুক্ত করবে, গণতন্ত্র মুক্ত করবে, খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবে; গণতান্ত্রিক একটি রাষ্ট্রব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করবে।

মহান বিজয় দিবসে গতকাল বুধবার সকালে বিএনপির নেতাকর্মীদের নিয়ে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো শেষে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। এর আগে ভোরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। দেশব্যাপী বিএনপির কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এ ছাড়া দেশব্যাপী আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের বলেন, আওয়ামী লীগ দীর্ঘ ১০ বছর ধরে জোর করে ক্ষমতায় বসে আছে। তারা গণতন্ত্র ধ্বংস করে মানুষের মৌলিক অধিকার, গণতান্ত্রিক অধিকার, স্বাধীনভাবে কথা বলার অধিকার, সংবাদপত্রের স্বাধীনতা ধ্বংস করে দিয়ে একদলীয় শাসনব্যবস্থা কায়েমে কাজ করছে। আওয়ামী লীগ সব সময় প্রতারণার রাজনীতি করেছে। তারা মুখে গণতন্ত্রের কথা বলেছে, কিন্তু কাজে স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে চেয়েছে এবং ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য তাদের কাছে নীতি-নৈতিকতা নেই, সব রকম অনৈতিক কার্যকলাপ করেছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধ করে আমরা বিজয় পেয়েছি;  কিন্তু মুক্তি মেলেনি। আর সেই মুক্তির জন্যই সংগ্রাম করছি। আওয়ামী লীগ স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাস করে না বলেই জিয়াউর রহমানকে অপমান করে এবং দেশনেত্রীকে কারারুদ্ধ করে রেখেছে। আওয়ামী লীগ সম্পূর্ণভাবে ফ্যাসিবাদী স্বৈরতান্ত্রিক দলে পরিণত হয়েছে।’

গতকাল ভোরে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করে সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে বিএনপি মহাসচিব নেতাকর্মীদের নিয়ে শেরেবাংলানগরে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি ও বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। পরে প্রয়াত নেতার আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যাপক এ জেড এম জাহিদ হোসেন, আমানউল্লাহ আমান, আবদুস সালাম, হাবিবুর রহমান হাবিব, খায়রুল কবীর খোকনসহ অঙ্গসংগঠনের নেতারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। পরে মহানগরের সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, কাজী আবুল বাশারসহ নেতাকর্মীদের নিয়ে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী।

অঙ্গসংগঠনের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা দলের সাদেক আহমেদ খান, যুবদলের সাইফুল ইসলাম নিরব, সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, মামুন হাসান, এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক দলের মোস্তাফিজুর রহমান, আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েল, সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, মহিলা দলের হেলেন জেরিন খান প্রমুখ নিজ নিজ সংগঠনের পক্ষে জিয়ার কবরে শ্রদ্ধা জানান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা