kalerkantho

রবিবার । ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৫ রজব ১৪৪২

নতুন বছরে দু'জন প্রধানমন্ত্রী পাচ্ছি, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান: দুদু

অনলাইন ডেস্ক   

৭ ডিসেম্বর, ২০২০ ০৯:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নতুন বছরে দু'জন প্রধানমন্ত্রী পাচ্ছি, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান: দুদু

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু। ফাইল ছবি

নতুন বছরে নতুন সরকার আসবে মন্তব্য করে‌ বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, নতুন বছ‌রে আমরা ধারাবা‌হিকভা‌বে দু’জন প্রধানমন্ত্রী পা‌চ্ছি, বেগম খা‌লেদা জিয়া এবং তা‌রেক রহমান।

রবিবার (৬ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে নব্বইয়ের ডাকসু ও সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে ‘স্বৈরাচার পতন ও গণতন্ত্র মুক্তি’ দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ‘১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে অর্জিত গণতন্ত্র ও স্বাধীনতা। এই গণতন্ত্র, স্বাধীনতাকে কারা ধ্বংস করেছে? জাতি হিসেবে যদি আমরা আত্মজিজ্ঞাসায় আসি তাহলে দেখবেন এদেশের ছাত্রজনতা, বীর জনতা স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র অর্জন করেছিল। কিন্তু পরবর্তীকালে একটি রাজনৈতিক দল ও তার নেতৃবৃন্দ একদলীয় শাসন কায়েম করে গণতন্ত্র ও স্বাধীনতাকে ধ্বংস করেছে। ৯০-এর গণঅভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে জাতি আবার গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করেছিল। সেটা ধ্বংস করেছে কারা? এই প্রশ্নটা যদি করি তাহলে যে নামটি আসবে সেটা হল আজকে ক্ষমতায় আছে যারা (আওয়ামী লীগ)।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, দিনতো সামনে আসছে। এসব থাকবে না। আজকে যারা ক্ষমতায় আছে। পুলিশ, মিলিটারি, বিচারালয়, প্রশাসন, কিছু কিছু সাংবাদিক তাঁর (শেখ হাসিনা) পক্ষে গীত গাওয়ার জন্য আজ তৈরি আছে। কিন্তু চাকরিও তো দরকার আছে। মানুষ চাকরিহারা, না খেয়ে আছে। দেশে এমন কোনো দ্রব্য নাই যার মূল্য তিন থেকে পাঁচ গুণ বেশি হয় নাই। আমার কৃষক সমাজ, মেহেনতি মানুষ ভয়ঙ্কর কষ্টে আছে। এমন একটা অবস্থায় দেশ চলছে।’

প্রধানমন্ত্রী উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়া ও আমাদের অ্যাক্টিং চেয়ারপারসন তারেক রহমানকে এত ভয় পান কেন? আমাদের দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখেছেন। তাঁর বাসাটাও একটা কারাগার। তারেক রহমানকে আসতে দেন না কেন? তিনি তো স্বাধীনতার ঘোষকের জৈষ্ঠপুত্র। আপনি (শেখ হাসিনা) যদি প্রধানমন্ত্রী হয়ে থাকেন তবে বেগম খালেদা জিয়ার পরে তারেক রহমানও প্রধানমন্ত্রী হবেন।

ডাকসুর সাবেক ভিপি আমান উল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর,‌ ভাইস-চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, ডাক্তার জাহিদ ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব প্রমুখ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা