kalerkantho

মঙ্গলবার। ৫ মাঘ ১৪২৭। ১৯ জানুয়ারি ২০২১। ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

'শেখ হাসিনা-খালেদা জিয়া নেতৃত্ব পেয়েছেন উত্তরাধিকার সূত্রে'

অনলাইন ডেস্ক   

৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ২২:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'শেখ হাসিনা-খালেদা জিয়া নেতৃত্ব পেয়েছেন উত্তরাধিকার সূত্রে'

শেখ হাসিনা ও খালেদা জিয়া উভয়েই উত্তরাধিকার সূত্রে নেতৃত্ব পেয়েছেন। তারা প্রকৃত অর্থে নারীদের নেতৃত্বের প্রতিনিধি নয় বলে মন্তব্য করেছেন জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক, রাষ্ট্রবিজ্ঞানী ড. দিলারা চৌধুরী।

আজ শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় ঢাকার উত্তরা ৯ নম্বর সেক্টরস্থ একটি রেস্টুরেন্টের কমিউনিটি হলে এবি পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তর আয়োজিত ‘রাজনীতিতে নারী নেতৃত্ব ও নারীর অংশগ্রহণ’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, পরিবার পরিচালনায় যেমন বাবা, মা উভয়ের সম্মিলিত সিদ্ধান্ত গুরুত্বপূর্ণ তেমনি রাজনীতি ও রাষ্ট্র পরিচালনায় নারী-পুরুষের সমান অংশগ্রহণ অপরিহার্য। বাংলাদেশ দীর্ঘ সময় ধরে দুই নারী দ্বারা শাসিত হলেও শেখ হাসিনা ও খালেদা জিয়া উভয়েই উত্তরাধিকার সূত্রে নেতৃত্ব পেয়েছেন। তারা প্রকৃত অর্থে নারীদের অধিকার ও নেতৃত্বের প্রতিনিধি নয়। সমাজের প্রত্যেক স্তরে পুরুষ রা যখন একক সিদ্ধান্ত নেয় তখন পঞ্চাশ ভাগ নারীর প্রয়োজন ও দাবি সম্পর্কে তারা স্বাভাবিকভাবেই অজ্ঞাত থাকেন, এটা তাদের দোষ নয় এটা পদ্ধতির দূর্বলতা। ড. দিলারা নারীদের ব্যাপকভাবে রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হবার আহ্বান জানান।

বিজয়ের ৪ যুগ পেরিয়ে বাংলাদেশের রাজনীতিতে নারীদের অংশগ্রহণ ও নেতৃত্ব পর্যালোচনার জন্য এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এবি পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তর সমন্বয়কারী, দলের সহকারী সদস্য সচিব নাজমুল হুদা অপুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দলের সদস্য সচিব মজিবুর রহমান মন্জু।

আলোচনায় অংশ নেন দলের সহকারী সদস্য সচিব শ্রমিক নেত্রী বেবি পাঠান, সুলতানা রাজিয়া, বদরুল হুদা খান, নুসরাত তামান্না ফারুকী, আব্দুল্লাহ আল হাসান সাকিব, রুনা হোসাইন, আনিকা সুলতানা ঝুমুর, সুমাইয়া শারমিন ফারহানা প্রমূখ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মজিবুর রহমান মন্জু বলেন, ৫২ সালে ভাষার মর্যাদা রক্ষা করতে গিয়ে রাজপথে ছাত্রদের বুক ঝাঁঝরা হয়েছিল। আজ স্বাধীন বাংলাদেশেও অধিকারের দাবি তোলায় অজস্র ছাত্রদের গুম খুনের শিকার হতে হচ্ছে। আমরা পদে পদে অধিকার বঞ্চিত। বিজয়ের ৪৯ বছরে আমাদের প্রাপ্তি সীমাহীন দুর্নীতি, আগের রাতে ভোট আর নারী ও শিশুদের জীবন এবং ইজ্জতের চরম নিরাপত্তাহীনতা। তিনি সেবা ও সমস্যা সমাধানের রাজনীতির মাধ্যমে রাষ্ট্র মেরামতের নতুন ধারা সৃষ্টির জন্য ব্যাপকভাবে নারীদের এবি পার্টির কার্যক্রমে  অংশগ্রহণ ও নেতৃত্বের জন্য প্রস্তুত হবার আহ্বান জানান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা