kalerkantho

মঙ্গলবার। ৫ মাঘ ১৪২৭। ১৯ জানুয়ারি ২০২১। ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতি

ভাসানচরে স্থানান্তর নিয়ে ভুল ব্যাখ্যা না দেওয়ার আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ ডিসেম্বর, ২০২০ ২৩:৫২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভাসানচরে স্থানান্তর নিয়ে ভুল ব্যাখ্যা না দেওয়ার আহ্বান

অস্থায়ীভাবে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষার জন্য বাংলাদেশ তার সর্বোচ্চ করছে। তাদের ভাসানচরে স্থানান্তরও সরকারের আন্তরিক প্রচেষ্টার অংশ। তাই এ ব্যাপারে ‘ভুল ব্যাখ্যা’ না দিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সরকার।

আজ শুক্রবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানায়। রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তর নিয়ে জাতিসংঘসহ বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থার উদ্বেগের পরিপ্রেক্ষিতে এ আহ্বান জানানো হলো। এদিনই প্রথম ধাপে এক হাজার ৬৪২ জন রোহিঙ্গাকে কক্সবাজারের উখিয়ার শরণার্থী শিবির থেকে ভাসানচরে নেওয়া হয়।

এই রোহিঙ্গারা সেখানে ‘স্বেচ্ছায়’ গেছে জানিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘রোহিঙ্গারা মিয়ানমারের নাগরিক এবং অবশ্যই তাদের সে দেশে ফেরাতে হবে। অস্থায়ীভাবে আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমারের এই নাগরিকদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষার জন্য বাংলাদেশ তার সর্বোচ্চটা করছে।’ এতে বলা হয়, ‘এই পর্যায়ে এসে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জন্য একমাত্র বাস্তবসম্মত পদক্ষেপ হওয়া উচিত রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন শুরুর জন্য মিয়ানমারের সঙ্গে দায়িত্ব নিয়ে এবং কার্যকরভাবে সম্পৃক্ত হওয়া, সেটাই সমস্যার একমাত্র স্থায়ী সমাধান।’

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে আরো বলা হয়, ‘একই সঙ্গে আমরা বাংলাদেশ সরকারের আন্তরিক চেষ্টাকে খাটো করা এবং ভুল ব্যাখ্যা না করার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সতর্ক হওয়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।’

কক্সবাজারের শরণার্থী শিবিরসহ অন্যান্য জায়গায় আশ্রয় নেওয়া প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গাকে নিয়ে নানা সমস্যা সৃষ্টির প্রেক্ষাপটে দুই বছর আগে তাদের একটি অংশকে হাতিয়ার কাছে মেঘনা মোহনার দ্বীপ ভাসানচরে স্থানান্তরের পরিকল্পনা নেয় সরকার। সে অনুযায়ী সেখানে অবকাঠামো নির্মাণসহ সব ধরনের সুবিধা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে। গতকাল প্রথম ধাপে সেখানে পৌঁছানো রোহিঙ্গারা সব দেখে খুশি হওয়ার কথা জানিয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা