kalerkantho

শনিবার । ৯ মাঘ ১৪২৭। ২৩ জানুয়ারি ২০২১। ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

নিবন্ধন না নিয়ে ব্যবসা, অনলাইন শপিং প্লাটফর্মে ভ্যাট গোয়েন্দার অভিযান

ভ্যাট ফাঁকির মামলা দায়ের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৯:২৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিবন্ধন না নিয়ে ব্যবসা, অনলাইন শপিং প্লাটফর্মে ভ্যাট গোয়েন্দার অভিযান

ফাইল ফটো

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) ভ্যাট গোয়েন্দা অধিদপ্তরের দল ভ্যাট নিবন্ধন না নিয়ে ব্যবসা করায় স্থানীয় একটি অনলাইন শপিং প্লাটফর্মে অভিযান পরিচালনা করেছে। ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগের প্রমাণ পাওয়ায় আজ ভ্যাট গোয়েন্দা প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে ভ্যাট আইনে মামলা করেছে।

ভ‍্যাট নিরীক্ষা গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মইনুল খান এ ঘটনার সত‍্যতা নিশ্চিত করেন।

মিরপুরের ওই অনলাইন শপিং প্লাটফর্মের নাম শার্টোলজি। অভিযানে দেখা যায়, কোনোরকম ভ্যাট নিবন্ধন গ্রহণ ব্যাতিরেকে প্রতিষ্ঠানটি অনলাইনে পণ্য বিক্রয় করে আসছে।

অনুসন্ধানে দেখা যায়, শার্টোলজি অনলাইনে মেন্স শার্টস বিক্রির জন্য বিজ্ঞাপন দিয়ে তা বাহক মারফত গ্রাহকের নিকট সরবরাহ করে থাকে।

ভ্যাট আইন অনুসারে অনলাইনে এই পণ্য বিক্রয় করতে ৭.৫ % হারে ভ্যাট প্রযোজ্য। এই কার্যক্রমের সেবা কোড: এস ০৯৯.৬০।

ভ্যাট গোয়েন্দার কাছে ফেসবুকে একজন গ্রাহকের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম সম্পর্কে গোপন সংবাদ সংগ্রহ করা হয়।

এরপর ভ্যাট গোয়েন্দার একটি দল ১৯ নভেম্বর এই অভিযানটি পরিচালনা করে। সংস্থার সহকারী পরিচালক মো. মাহিদুল ইসলাম অভিযানে নেতৃত্ব দেন।

এই অভিযানে শার্টোলজির প্রাঙ্গন থেকে প্রতিষ্ঠানের অনলাইন কার্যক্রম সংক্রান্তে বেশ কিছু বাণিজ্যিক কাগজপত্র জব্দ করা হয়। এতে দেখা যায়, জুন ২০১৯ থেকে এই প্লাটফর্মে ৬০ লক্ষ টাকার পণ্য অনলাইনে বিক্রয় করা হয়। এর উপর নির্ধারিত ৭.৫% হারে ভ্যাট প্রযোজ্য হয় ৪.১৬ লক্ষ টাকা।অথচ আইনি বাধ্যবাধকতা সত্ত্বেও এই শপিং কার্যক্রমের জন্য ভ্যাট নিবন্ধন নেয়নি অনলাইন শার্টোলজি।

প্রাঙ্গন থেকে জব্দকৃত কাগজপত্র অনুসারে, অনলাইন প্লাটফর্মটি পণ্য বিক্রয় ও সরবরাহ করে ৪.১৬ লক্ষ টাকা ভ্যাট ফাঁকি দিয়েছে।

ভ্যাট নিবন্ধন না নিয়ে ব্যবসা করায় এবং ভ্যাট ফাঁকির সাথে জড়িত হওয়ায় প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে আজ ভ্যাট আইনে মামলা করা হয়েছে। এটি ঢাকা পশ্চিম ভ্যাট কমিশনারেট নিষ্পত্তি করবে।

ভ্যাটের বিচারিক আদালতে অভিযোগ প্রমাণিত হলে ফাকিকৃত ভ্যাট পরিশোধসহ এই পরিমাণের দ্বিগুণ জরিমানা দন্ড হতে পারে।

এনবিআরের নির্দেশে এরকম ভ্যাট ফাঁকি দিয়ে আরো যেসব প্লাটফর্মে ব্যবসা চলছে ভ্যাট গোয়েন্দারা তাদের সম্পর্কে খোঁজ নিচ্ছে এবং অনুসন্ধানশেষে আইনি ব্যবস্থা নিবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা