kalerkantho

বুধবার । ১৩ মাঘ ১৪২৭। ২৭ জানুয়ারি ২০২১। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ট্রাভেল এজেন্সির মালিকানা হস্তান্তর ও বিদেশে শাখা খোলায় সায় সংসদীয় কমিটির

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৬:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ট্রাভেল এজেন্সির মালিকানা হস্তান্তর ও বিদেশে শাখা খোলায় সায় সংসদীয় কমিটির

ফাইল ফটো

ট্রাভেল এজেন্সিগুলোর মালিকানা হস্তান্তর ও বিদেশে শাখা খোলার প্রস্তাবের সঙ্গে একমত প্রকাশ করেছে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। কমিটির বৈঠকে ‘বাংলাদেশ ট্রাভেল এজেন্সি (নিবন্ধন ও নিয়ন্ত্রণ) (সংশোধন) বিল-২০২০’ শীর্ষক বিলটি পাসের প্রস্তাব করে সংসদে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী। বৈঠকে কমিটির সদস্য প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, আশেক উল্লাহ রফিক ও সৈয়দা রুবিনা আক্তার এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কমিটি সূত্র জানায়, বিদ্যমান আইন সংশোধনের প্রস্তাব সংসদে পাস হলে ট্রাভেল এজেন্সিগুলো সরকারের অনুমোদন নিয়ে দেশে-বিদেশে শাখা অফিস খুলতে পারবে। বর্তমানে কোন অপরাধের জন্য ট্রাভেল এজেন্সিকে জরিমানার সুযোগ নেই। কর্তৃপক্ষ তাদের নিবন্ধন স্থগিত বা বাতিল করে। আইনটি সংশোধন হলে জরিমানার সুযোগ পাওয়া যাবে। ট্রাভেল এজেন্সিগুলো যৌক্তিক কারণে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নিবন্ধনের আবেদন করতে না পারলে পরবর্তী ছয় মাসের মধ্যে জরিমানা দিয়ে আবেদন করতে পারবে।

বর্তমান আইন অনুযায়ী, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নিবন্ধনের আবেদন না করলে ট্রাভেল এজেন্সির নিবন্ধন বাতিল হয়ে যেতো। প্রস্তাবিত আইনে বলা হয়েছে, কোনো বিধান লঙ্ঘন করলে ছয় মাস জেল, পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ড দেওয়া হবে। এ সংক্রান্ত মামলা নিষ্পত্তিতে ফৌজদারি কার্যবিধি প্রযোজ্য হবে। এছাড়া ট্রাভেল এজেন্সি ঠিকানা পাল্টাতে সরকারের অনুমোদন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে প্রস্তাবিত আইনে।

কমিটি সূত্র জানায়, বৈঠকে বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের ২০২০-২০২১ সালের বাজেট ব্যবহার সম্পর্কে ও বৈশ্বিক করোনা মহামারি প্রতিরোধে মন্ত্রণালয় কর্তৃক গৃহীত পদক্ষেপ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা হয়। এসময় হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালের ৭১৪ কোটি টাকার সংস্কার কাজের টেন্ডার প্রক্রিয়া ও প্রকল্প বাস্তবায়নের অনিয়ম ও দুর্নীতি অভিযোগ নিয়ে আগামী বৈঠকে আলোচনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা