kalerkantho

সোমবার। ৪ মাঘ ১৪২৭। ১৮ জানুয়ারি ২০২১। ৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বীরপ্রতীক তারামন বিবির মৃত্যুবার্ষিকী আজ, নেই সরকারি কর্মসূচি

অনলাইন ডেস্ক   

১ ডিসেম্বর, ২০২০ ২১:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বীরপ্রতীক তারামন বিবির মৃত্যুবার্ষিকী আজ, নেই সরকারি কর্মসূচি

বীরপ্রতীক তারামন বিবির দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ মঙ্গলবার। ২০১৮ সালে আজকের এই দিনে নিজ বাড়িতে মারা যান তিনি। ১৯৫৭ সালে রাজিবপুর উপজেলার শংকর মাধবপুর গ্রামে তিনি জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় তিনি ১১নম্বার সেক্টরে মুক্তিযোদ্ধাদের ক্যাম্পে রান্না করতেন মাত্র ১৪ বছর বয়সে। শুধু রান্নাই নয় কাধে তুলে নেন বাংলাদেশ রক্ষার হাতিয়ার, পাগল সেজে পাকবাহিনীর গোপণ তথ্য সংগ্রহসহ আরো অনেক কিছু। যা মুক্তিবাহিনীর পাকবাহিনীকে পরাজিত করতে কাজে লাগতো। বীরপ্রতীক তারামন বিবিকে ১৯৯৫ সালে বীরপ্রতীক খেতাব পদক তুলে দেওয়া হয়।

মুক্তিযুদ্ধে অসামান্য অবদানের জন্য তাকে বীরপ্রতীক খেতাব দেয়া হলেও তিনি দীর্ঘ ২৫ বছর পর তা জানতে পারেন। তার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে তার নিজ হাতে গড়া সামাজিক সংগঠন (বীরপ্রতিক তারামন বিবি স্টুন্ডেন্ট ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন) থেকে সারা দিনব্যাপী কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

কর্মসূচিগুলো হলো - সকাল ১১টায় মরহুমার কবর জিয়ারত, সবার ফেসবুক প্রোফাইলে কালো ব্যাচ দিয়ে শোক প্রকাশ এবং এশার নামজের পরে মরহুমার জন্য মিলাদ ও দোয়া মাহফিল। তবে সরকারিভাবে এই নারী মুক্তিযোদ্ধার জন্য কোনো কর্মসূচি হাতে নেয়নি।

এ ব্যাপারে তার ছেলে আবু তাহের বলেন, আমার মায়ের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী আজ। কিন্তু প্রশাসন থেকে কোনো প্রকার মিলাদ মাহফিল বা শ্রদ্ধা জানানো হয়নি। আমি আমার নিজ উদ্যোগে কুরআন ও মিলাদের আয়োজন করেছি। আমি সরকারের কাছে অনুরোধ করি, আমার মাকে যেন জাতীয় সন্মান দেওয়া হয় এবং আমার মায়ের নামে যেন সরকার রাজিবপুরে একটা বিশ্ববিদ্যালয় করে দেয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা