kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ মাঘ ১৪২৭। ২৬ জানুয়ারি ২০২১। ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বিজয় দিবসে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ইনডোর অনুষ্ঠান করা যাবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৬:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিজয় দিবসে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ইনডোর অনুষ্ঠান করা যাবে

করোনার কারণে এবার স্বাস্থ্যবিধি মেনে মহান বিজয় দিবসের ইনডোর অনুষ্ঠান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে অবহিত করে এ অনুষ্ঠান করা যাবে।

আজ মঙ্গলবার সকাল ১১টায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বিজয় দিবসের নিরাপত্তা নিয়ে এক ভাচুয়াল আন্তমন্ত্রণালয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ভাচুয়াল এ সভার সভাপতি ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। সভায় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নেওয়া জাতীয় কমসূচি সুষ্ঠভাবে বাস্তবায়নে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে অলোচনা হয়।

সভায় সিদ্ধান্ত হয়, মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ইনডোর অনুষ্ঠান করা যাবে। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে অবহিত করে অনুষ্ঠান করতে হবে। অনুষ্ঠানে যাতে নাশকতা করতে না পারে সে জন্য সারা দেশব্যাপী গোয়েন্দা কাযক্রম অব্যাহত থাকবে। 

বিজয় দিবসে সকল সরকারি আধা সরকারি, স্বায়ত্ব শাসিত এবং বেসরকারি ভবনে মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের নিদেশনা অনুযায়ী সঠিক মাপ ও রঙের জাতীয় পতাকা যথাযথভাবে উত্তোলন করতে হবে। সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে ঢাকাসহ সারা দেশে জেলা উপজেলা ৩১বার তোপধনীর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিভিন্ন স্থাপনায় আলোক সজ্জা করা যাবে। অনুষ্ঠান সমূহ সফল করার জন্য ইউটিলিটি সহযোগিতা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানসমূহ ইউটিলিটি প্রদান করবে।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে জাতীয় স্মৃতিসৌধ যাওয়া আসায় ও পুস্পস্তবক অপনের সময় যথাযথ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হবে। জাতীয় স্মৃতিসৌধ এলাকায় পযাপ্ত সিসি ক্যামেরা স্থাপনসহ নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা আয়োজন থাকবে।ঢাকা থেকে সাভার পযন্ত পর্যাপ্ত নিরাপত্তাসহ রাস্তা ঘাট পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকবে।

বিজয় দিবসে সারা দেশে মসজিদ মন্দির গিজাসহ ধমীয় উপসানালয়ে শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মার মাগফিরাত এবং জাতির শান্তি সমৃদ্ধি ও অগ্রগতি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হবে।

বিজয় দিবসে কারাগার, হাসপাতাল, বৃদ্ধাশ্রম এতিমখানায় উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হবে। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মেডিক্যাল টিম ফায়ার সাভিসের সেবা থাকবে। বিজয় দিবস উপলক্ষে ঢাকাসহ সারা দেশে নিরাপত্তা জোরদার করা হবে। সীমান্তে মাদকসহ অন্যান্য চোরাচালান বন্ধে নজরদারী বাড়ানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা