kalerkantho

শনিবার । ৯ মাঘ ১৪২৭। ২৩ জানুয়ারি ২০২১। ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

এখন হাসতেও পারেন ইয়াসমিন

অনলাইন ডেস্ক   

১ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৬:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এখন হাসতেও পারেন ইয়াসমিন

অসংখ্য লোমহর্ষক ঘটনার মাঝেও চট্টগ্রামের সেই গৃহবধু ইয়াসমিনের কথা নিশ্চয়ই সবার মনে আছে। এই তো মাত্র কয়দিন আগে তোর বিষ কমাচ্ছি' বলেই ইয়াসমিনের যোনি ও পায়ুপথসহ পুরো নিম্নাঙ্গে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন স্বামী রাফেল। ৭ বছরের সংসার এবং ৪ বছর বয়সী সন্তানের দোহাই দিয়ে অসহায় ইয়াসমিন স্বামীর কাছে প্রাণ ভিক্ষা চাইলেও স্বামী রাফেলের তাতে কোন ভ্রূক্ষেপ করেনি। রাফেল (৩০) নামের সেই পিশাচকে আটক করেছে পুলিশ। ৪০ শতাংশ দগ্ধ হওয়া ইয়াসমিন এখন সেরে উঠছেন। 

আজ মঙ্গলবার ইয়াসমিনের সর্বশেষ আপডেট জানিয়েছেন চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের রাঙ্গুনিয়া সার্কেলের এএসপি আনোয়ার হোসেন (শামীম আনোয়ার)। তিনি সোশ্যাল সাইটে ইয়াসমিনের কিছু ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, 'পুরো নিম্নাঙ্গ সাদা ব্যান্ডেজে মোড়া এবং মলিন মুখভর্তি অসহনীয় যন্ত্রণার ছাপ। কিন্তু আমাকে ওয়ার্ডে ঢুকতে দেখেই অনেক কষ্ট করে চেহারায় হাসির রেখা ফুটিয়ে তুললেন ইয়াসমিন। আগুনে দগ্ধ হবার পর প্রথম দুই দিন চট্টগ্রামে তার চিকিৎসার যৎসামান্য দেখভাল করেছিলাম। আর এখন চট্টগ্রাম থেকে এতদূরে ঢাকায় তাকে দেখতে এসেছি।' 

তিনি আরও লিখেন, 'সেই আমাকে দেখে যদি তিনি মুখ মলিন করে রাখেন, তাহলে আমি হয়তো মনে কষ্ট পেতে পারি- এই ভেবেই কি যন্ত্রণা লুকিয়ে তার এই হাসির চেষ্টা? ঢাকাস্থ শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে গিয়ে ইয়াসমিনকে দেখে এলাম। আলহামদুলিল্লাহ, তিনি আগের চেয়ে ভাল আছেন। যারা ইনবক্সে বারবার আমার কাছে ইয়াসমিনের  বিষয়ে আপডেট জানতে চাচ্ছিলেন, ছবিগুলো দেখে আশা করি তাদের কৌতূহল নিবারণ হবে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা