kalerkantho

সোমবার । ১১ মাঘ ১৪২৭। ২৫ জানুয়ারি ২০২১। ১১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বিয়ে করে হাইকোর্টে জামিন চাইলেন ধর্ষণ মামলার আসামি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩০ নভেম্বর, ২০২০ ০২:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিয়ে করে হাইকোর্টে জামিন চাইলেন ধর্ষণ মামলার আসামি

ধর্ষণের মামলা দায়েরকারী নারীকে বিয়ে করে কারামুক্তির জন্য জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেছেন ওই মামলার আসামি। ফেনীর সোনাগাজীর দক্ষিণ পশ্চিম চর দরবেশ গ্রামের জহিরুল ইসলাম ওরফে জিয়া উদ্দিনের করা আবেদনের বিষয়ে আজ সোমবার আদেশ দেবেন বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

গত ২৭ মে ভোরে একই ঘরে অবস্থান করা অবস্থায় গ্রামবাসী জিয়া ও অভিযোগকারী মেয়েটিকে আটক করে। স্থানীয় লোকজন দুজনকে বিয়ে দিতে চেষ্টা করে। কিন্তু জিয়া ও তাঁর বাবা আবু সুফিয়ান মেম্বার রাজি হননি। এরপর সেদিনই মেয়েটি সোনাগাজী থানায় ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা করেন। পুলিশ ওই দিনই জিয়াকে গ্রেপ্তার করে। এরপর জিয়া ফেনীর আদালতে জামিনের আবেদন করেন। ওই আদালত তাঁর আবেদন খারিজ করে দেন।

এরপর হাইকোর্ট বেঞ্চে জামিনের আবেদন করেন জিয়া। আবেদনে বলা হয়, জামিন পেলে মামলার বাদীকে বিয়ে করবেন তিনি। এ আবেদনের ওপর শুনানি শেষে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ গত ১ নভেম্বর কারা কর্তৃপক্ষের প্রতি আদেশ দেন। আদেশে উভয় পক্ষ রাজি থাকলে বিয়ের আয়োজন করতে বলা হয়।

ওই আদেশের পরই গত ১৯ নভেম্বর ফেনী জেলা কারাগারে তাঁদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। এরপর হাইকোর্টকে তা অবহিত করে গতকাল জামিন চান আসামি। আসামিপক্ষে আইনজীবী ছিলেন ফারুক আলমগীর চৌধুরী।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা