kalerkantho

শুক্রবার। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ৪ ডিসেম্বর ২০২০। ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

বিজিবির ১০৫ সদস্যের মুক্তিযোদ্ধা সনদ বাতিলের ওপর স্থগিতাদেশ বহাল

অনলাইন ডেস্ক   

২২ নভেম্বর, ২০২০ ১৯:৩৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিজিবির ১০৫ সদস্যের মুক্তিযোদ্ধা সনদ বাতিলের ওপর স্থগিতাদেশ বহাল

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) ১০৪ কর্মকর্তা-কর্মচারীর মুক্তিযোদ্ধা সনদ বাতিলের আদেশ স্থগিত করে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশের ওপর স্থিতাবস্থা দিয়েছেন আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি মো. নূরুজ্জামান। একইসঙ্গে বিমান বাহিনীর একজনের ক্ষেত্রেও একই আদেশ দেওয়া হয়েছে। ফলে হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ বহাল রয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা। আগামী বছরের ২৯ জুলাই পর্যন্ত এ স্থিতাবস্থা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের ওপর আগামী বছর ২৯ জুলাই আপিল বিভাগের পুর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির জন্য দিন ধার্য করা হয়েছে।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে আইনজীবী ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সমরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস ও তুষার কান্তি রায়। রিট আবেদনকারী পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট আহসানুল করীম ও ব্যারিস্টার মো. আব্দুল কাইয়ূম লিটন।

গত ৭ জুন বিজিবি’র ১১৩৪ জন সদস্যের মুক্তিযোদ্ধা সনদ বাতিল করে সরকার। এ বিষয়ে বলা হয়, ‘জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল আইন ২০০২ এর ৭(ঝ) ধারা অনুযায়ী জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের(জামুকা) সুপারিশের প্রেক্ষিতে রুলস অব বিজনেস ১৯৯৬ এর শিডিউল-১ এর তালিকা ৪১ এর ৫ নং ক্রমিকে প্রদত্ত ক্ষমতা বলে জামুকার ৬৬তম সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক স্বাধীনতা যুদ্ধের পর (১৬ ডিসেম্বর ১৯৭১ সালের) বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ এ যোগদানকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের ১১৩৪ জনের নামে প্রকাশিত গেজেট বাতিল করা হলো।’ এই গেজেট চ্যালেঞ্জ করে রিট আবেদন করা হয়। এ রিট আবেদনে হাইকোর্ট গেজেটের কার্যকারিতা স্থগিত করেন ও রিট আবেদনকারীদের ভাতা চালু রাখার নির্দেশ দেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা