kalerkantho

শুক্রবার । ৮ মাঘ ১৪২৭। ২২ জানুয়ারি ২০২১। ৮ জমাদিউস সানি ১৪৪২

১৫ নভেম্বর ধর্মঘটের হুমকি

চাকরি স্থায়ীকরণ দাবি ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ২২৪ কর্মচারীর

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ নভেম্বর, ২০২০ ১৮:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চাকরি স্থায়ীকরণ দাবি ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ২২৪ কর্মচারীর

দীর্ঘ এক বছরের বকেয়া সহ বেতন-ভাতা চালু এবং প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক চাকরি স্থায়ীকরণের দাবি জানিয়েছেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের দৈনিকভিক্তিক নিয়োগপ্রাপ্ত ২২৪ জন কর্মচারী। দাবি না মানলে আগামী ১৫ নভেম্বর প্রতিষ্ঠানটির প্রধান কার্যালয়ে ধর্মঘটের হুমকি দিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘ইসলামিক ফাউন্ডেশন দৈনিক ভিত্তিক কর্মচারী কল্যাণ সমিতি’ আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়। এর আগেও বিভিন্ন কর্মসুচি পালন করে সংগঠনটি।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সাবেক মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজালের সময়ে প্রতিষ্ঠানটির দাপ্তরিক প্রয়োজনে অর্গানোগ্রামের শূন্যপদের বিপরীতে ৩৫৯ জন কর্মচারীকে দৈনিক ভিত্তিতে নিয়োগ প্রদান করা হয়। এরমধ্যে ১৩৫জনকে ২০১৭ সালে রাজস্ব খাতে স্থানান্তর করা হয় এবং বাকী ২২৪জন কর্মচারী দৈনিক ভিত্তিকে এখনও কর্মরত আছেন। কিন্তু পরবর্তীতে একটি অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে ৩৫৯ জন কর্মচারীর বেতন ভাতা গত এক বছর যাবত বন্ধ করে রাখা হয়েছে। অথচ একই অডিট টিম অফিসারদের ক্ষেত্রে বিভিন্ন পদে গুরুতর আপত্তি পেশ করলেও তাদের বেতন-ভাতা বন্ধ করা হয়নি।

তারা বলেন, দীর্ঘ এক বছর বেতন-ভাতা বন্ধ থাকায় করোনা পরিস্থিতিতে এসব কর্মচারী পরিবার-পরিজন নিয়ে চরম দুর্বিসহ জীবন যাপন করছেন। উদ্ভুত পরিস্থিতিতে কর্মচারীদের দাবির বিষয়টি জানতে পেরে গত ১৬ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার একান্ত সচিবের মাধ্যমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ডিজিকে ভুক্তভোগী কর্মচারীদের ৫৬০টি মডেল মসজিদে নিয়োগ করে বেতন-ভাতা প্রদানের নির্দেশনা দেন। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর সে নির্দেশনা বাস্তবায়ন না করে ২২৪জনকে আউট সোর্সিংয়ে নিয়োগের পায়তারা করা হচ্ছে। ইফার রাজস্ব খাতের ৪৮৮টি শূন্যপদের মধ্যে ২২৪টি পদ আউটসোর্সিংয়ে নিয়োগ করা হলে পদগুলো সংস্থার স্থায়ী পদ হিসেবে আর থাকবে না। তাই এসব কর্মচারীকে রাজস্ব খাতে স্থানান্তরের দাবি জানানো হয়েছে সংবাদ সম্মেলনে।

সংবাদ সম্মেলনে ইসলামিক ফাউন্ডেশন দৈনিক ভিত্তিক কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি রেজাউল করিম, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক খাদিজা আক্তার শিলা, সহ-সভাপতি খাদিজা আক্তার, নূর হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা