kalerkantho

বুধবার । ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৫ নভেম্বর ২০২০। ৯ রবিউস সানি ১৪৪২

সংসদীয় কমিটির বৈঠকে প্রতিনিধিরা উপস্থিত না হওয়ায় ক্ষোভ

১৮ নভেম্বর শিল্পাঞ্চলে পাটকল শ্রমিকদের পদযাত্রা ও সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৮ অক্টোবর, ২০২০ ১৯:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১৮ নভেম্বর শিল্পাঞ্চলে পাটকল শ্রমিকদের পদযাত্রা ও সমাবেশ

বন্ধ ঘোষিত পাটকল শ্রমিক প্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ জানানো হলেও তারা সংসদীয় কমিটির বৈঠকে উপস্থিত হননি। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে সংসদীয় কমিটি। কমিটির পক্ষ থেকে আগামী বৈঠকে তাদের উপস্থিতি নিশ্চিত করার সুপারিশ করা হয়েছে। এদিকে আগামী ১৮ নভেম্বর দেশের সকল শিল্পাঞ্চলে পদযাত্রা ও সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে পাটকল শ্রমিকরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, আগের বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পাটকল শ্রমিকদের ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা নির্ধারণ ও বিভিন্ন সমস্যার সমাধানে পাটকল শ্রমিক প্রতিনিধিদের শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়।

আজ বুধবার জাতীয় সংসদ ভবনে সংসদীয় কমিটির সভাপতি মো. মুজিবুল হকের সভাপতিত্বে বৈঠক হলেও প্রতিনিধিরা কেউ উপস্থিত হননি। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন বৈঠকে উপস্থিত কমিটির সদস্য শাজাহান খান ও শামসুন নাহার।

এদিকে সংসদীয় কমিটির ডাকে সাড়া না দিলেও বুধবার বিকেলে রাজধানীর তোপখানা রোডের কার্যালয়ে বৈঠক করেছে পাট-সুতা ও বস্ত্রকল শ্রমিক-কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদ। বৈঠক থেকে আগামী ১৮ নভেম্বর দেশের সকল শিল্পাঞ্চলে পদযাত্রা ও সমাবেশের কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়েছে। রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল বন্ধের সিদ্ধান্ত বাতিল, পিপিপি বা লিজ নয়, আধুনিকায়ন করে রাষ্ট্রীয় খাতে সকল পাটকল চালু, শ্রমিকদের সমোদয় বকেয়া পাওয়া পরিশোধ, বেসরকারি পাটকলসমূহে ন্যূনতম মজুরি ঘোষণা ও বাস্তবায়নসহ দেশের পাটশিল্প রক্ষার দাবিতে এই কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে।

সংগঠনের আহ্বায়ক শ্রমিকনেতা সহিদুল্লাহ চৌধুরী সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সিপিবি’র কেন্দ্রীয় নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স, শ্রমিকনেতা লুতফর রহমান, মসিহউদ্দৌলা, কামরুল আহসান, আসলাম খান, কিশোর রায়, কাজী রুহুল আমিন, আনোয়ার আলী ও শরিফুজ্জামান শরিফ।

বৈঠকে পাট ও পাটশিল্প রক্ষার দাবিতে পহেলা নভেম্বর থেকে ১৭ নভেম্বর পাটশিল্প এলাকায় জনসংযোগ, প্রচারপত্র বিলি, সমাবেশ এবং ১৮ নভেম্বর বুধবার বিকেল ৪টা থেকে ৫টা পর্যন্ত পাটশিল্প এলাকায় পদযাত্রা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা