kalerkantho

রবিবার । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৯ নভেম্বর ২০২০। ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২

হাইকোর্টের রায়

রেকর্ড করা পুকুরগুলোকে প্রাকৃতিক জলাধারের সংজ্ঞাভূক্ত করে গেজেট প্রকাশের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ অক্টোবর, ২০২০ ২১:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রেকর্ড করা পুকুরগুলোকে প্রাকৃতিক জলাধারের সংজ্ঞাভূক্ত করে গেজেট প্রকাশের নির্দেশ

মহানগর, বিভাগীয় শহর ও জেলা শহরের পৌর এলাকাসহ দেশের সকল পৌর এলাকায় অবস্থিত ব্যক্তি মালিকানাধীন হিসেবে রেকর্ড করা পুকুরগুলোকে প্রাকৃতিক জলাধারের সংজ্ঞাভূক্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। রায়ের কপি পাওয়ার এক বছরের মধ্যে জলাধার সংরক্ষণ আইন,২০০০-এর ২(চ) ধারায় প্রাকৃতিক জলাধারের সংজ্ঞাভূক্ত করে গেজেট প্রকাশের জন্য বন, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিবকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দিয়েছেন। গত ৫ মার্চ এ রায় দেন আদালত। সম্প্রতি এর পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়েছে। মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) করা এক রিট মামলায় এ রায় দেন হাইকোর্ট। রিট আবেদনকারীপক্ষে পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ এবং বিবাদি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. মনিরুজ্জামান। 

রায়ের বিষয়ে অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছেন, এই রায়ের ফলে ব্যক্তি মালিকানাধীন পুকুরও কেউ ভরাট করতে পারবেন না। 

বরিশাল শহরের ঝাউতলা এলাকায় প্রায় শতবর্ষি একটি পুকুর ভরাট ও দখল বন্ধে ২০১২ সালে রিট আবেদন করে এইচআরপিবি। এ রিট আবেদনে ওইবছরের ৩০ সেপ্টেম্বর হাইকোর্ট পুকুর ভরাটের ওপর স্থিতিবস্থা বজায় রাখার আদেশ দেন এবং ওই পুকুর ভরাট বন্ধের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন। এই রুলের ওপর শুনানি শেষে গত ৫ মার্চ রায় দেন হাইকোর্ট। রায়ে রুল যথাযথ ঘোষণা করা হয়। একইসঙ্গে পুকুরটি ভরাট করা থেকে বিরত থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়। পাশাপাশি পুকুরটি সংষ্কার ও নিরাপদ পানি সংরক্ষণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা