kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ১ ডিসেম্বর ২০২০। ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

ধর্ষণরোধে ৬ দফা : সমমনা ইসলামী দলগুলোর বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ অক্টোবর, ২০২০ ১৯:৪১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ধর্ষণরোধে ৬ দফা : সমমনা ইসলামী দলগুলোর বিক্ষোভ

দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি, পুলিশ হেফাজতে ও সীমান্তে বিএসএফ কর্তৃক মানুষ হত্যার প্রতিবাদে এবং জিনা-ব্যভিচার ও ধর্ষণ রোধে ৬ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে বৃহস্পতিবার রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ এলাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে সমমনা ইসলামী দলসমুহ। বিকালে বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে এ বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশ সভাপতির বক্তব্যে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব ও সমমনা ইসলামী দলসমূহের সমন্বয়ক আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমী বলেন, বিএসএফের নির্বিচার বাংলাদেশী খুনের বিরুদ্ধে সরকারিভাবে কার্যকর পদক্ষেপতো দূরের কথা, মৌখিক কড়া প্রতিবাদ জানাতেও আমরা দেখছি না। এটা গভীর বেদনাদায়ক, লজ্জার ও নিন্দনীয়। সরকারের দুর্বল জনসমর্থন এবং ভারত নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণেই বিএসএফ এমন দুঃসাহস দেখাচ্ছে। ভারতীয় বিএসএফ কর্তৃক সীমান্ত হত্যা বন্ধ করতে হবে। আমাদের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের প্রশ্নে কোনো আপসকামিতা চলবে না।

তিনি বলেন, শুধু আইন করলেই হবে না, ধর্ষণ ও যেনা-ব্যাভিচার বন্ধ করতে হলে এগুলোর উৎস বন্ধ করতে হবে। গোড়া রেখে ডাল-পালা কাটলে বৃক্ষ যেমন সমূলে ধ্বংস করা যায় না, ধর্ষণের উৎস বন্ধ না করে মৃত্যুদন্ডের আইন দিয়ে ধর্ষণ বন্ধ করা যাবে না।

পুলিশি হেফাজতে সিলেটের রায়হান হত্যাকাণ্ড প্রসঙ্গে আল্লামা কাসেমী বলেন, হত্যার ঘটনাকে ধামাচাপা দিয়ে জনগণকে শান্ত করা যাবে না। এটা যে পুলিশি হত্যাকাণ্ড ছিল, তা দিবালোকের ন্যায় স্পষ্ট। সুতরাং দোষী পুলিশ সদস্যদের কঠিন শাস্তি কার্যকর করতে হবে।

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের প্রচার সম্পাদক মাওলানা জয়নুল আবেদীন ও বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের সহকারী প্রচার সম্পাদক মাওলানা ফয়সাল আহমদের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন খেলাফত আন্দোলনের আমির আল্লামা শাহ আতাউল্লাহ ইবনে হাফিজ্জী, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সহসভাপতি আল্লামা আব্দুর রব ইউসূফী, খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ড. আহমদ আব্দুল কাদের, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের আমির মাওলানা ড. মোহাম্মদ ঈশা সাহেদী, মুসলিম লীগের মহাসচিব কাজী আবুল খায়ের, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আল্লামা মামুনুল হক, খেলাফত আন্দোলনের নায়বে আমির মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, মাওলানা আব্দুল্লাহ হাসান প্রমূখ।

এদিকে সচেতন উলামা কেরাম উত্তরা অঞ্চলের উদ্যোগে নোয়াখালীতে বিবস্ত্র করে নারীর ওপর বর্বর নির্যাতন, এসসি কলেজসহ দেশব্যাপী সকল ধর্ষণ ও বিনা বিচারে হত্যার ঘটনার প্রতিবাদে এবং দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বিক্ষোভ মিছিলটি উত্তরা বাজার থেকে শুরু হয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ড. মাওলানা হাবিবুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন মুফতি মাওলানা আব্দুল আজিজ, মাওলানা কামরুল ইসলাম, মাওলানা মিজানুর রহমান, মাওলানা শফিকুল ইসলাম, মাওলানা আব্দুল করিম ও মাওলানা আজিম উদ্দীন প্রমূখ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা