kalerkantho

বুধবার । ১২ কার্তিক ১৪২৭। ২৮ অক্টোবর ২০২০। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

'মাহবুবে আলমের মৃত্যু আইনাঙ্গনের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি'

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ অক্টোবর, ২০২০ ২০:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'মাহবুবে আলমের মৃত্যু আইনাঙ্গনের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি'

প্রয়াত অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে আইনাঙ্গনের অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। তিনি বলেছেন, মাহবুবে আলম ছিলেন স্বাধীনতার সপক্ষ শক্তির বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর।

আজ বৃহস্পতিবার বাদ আসর বেইলি রোডের মিনিস্টার এপার্টমেন্টে অনুষ্ঠিত মাহবুবে আলমের কুলখানিতে এ মন্তব্য করেন প্রধান বিচারপতি।

এ অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি ছাড়াও আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, মৎস ও প্রাণী সম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের(ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বক্তব্য রাখেন।

এ সময় আপিল বিভাগের বিচারপতি মো. নূরুজ্জামান ও বিচারপতি ওবায়দুল হাসান, হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি মো. মঈনুল ইসলাম চৌধুরী, বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম, বিচারপতি মো. আবু জাফর সিদ্দিকী, বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম, বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট এএম আমিনউদ্দিন, তিন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেলসহ অনেক সরকারি আইন কর্মকর্তাসহ আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে অ্যাটর্নি জেনারেলের রুহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া অুনষ্ঠিত হয়।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের নম্রতা, ভদ্রতা ছিল সকলের জন্য অনুকরণীয়। কখনো তিনি মেজাজ খারাপ করেননি। 

শ ম রেজাউল করিম বলেন, দায়িত্ব পালনে সততা ও নিষ্ঠার কারণেই তিনি স্মরণীয় হয়ে থাকবেন। অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে বিভিন্ন মামলার শুনানিতে তিনি সরকারের স্বার্থকেই রক্ষা করেছেন। এ ব্যাপারে কাউকে ছাড় দিতেন না। তিনি বলেন, সংবিধান সংক্রান্ত বিভিন্ন মামলায় মাহবুবে আলমের যুক্তি-তর্ক তাকে অমরত্ব দেবে। 

ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম সাদামাটা ও ভালো মানুষ ছিলেন। সবসময় হাস্যোজ্জ্বল থাকতেন। মামলা শেষে আদালত থেকে বের হয়ে হাত ধরে সুন্দর করে কথা বলতেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা