kalerkantho

সোমবার । ১০ কার্তিক ১৪২৭। ২৬ অক্টোবর ২০২০। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

এজেন্টকে কুপিয়ে টাকা ছিনতাই : একজনের স্বীকারোক্তি, দুইজন রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৮:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এজেন্টকে কুপিয়ে টাকা ছিনতাই : একজনের স্বীকারোক্তি, দুইজন রিমান্ডে

রাজধানীর শেরেবাংলা নগর এলাকায় বিকাশ এজেন্টকে কুপিয়ে টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার চার আসামির মধ্যে এক আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সুফিয়ান মো. নোমানের আদালত আসামি মুন্নার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

এছাড়া ঢাকা মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদারের আদালত দুই আসামি শাহীন শেখ ও সোহেল হোসেনকে দুই দিন করে রিমান্ড এবং অপর এক আসামি হায়দার আলীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তেজগাঁও জোনাল টিমের পুলিশ পরিদর্শক মাহবুবুল হক আসামিদের আদালতে হাজির করেন। মুন্না নামে এক আসামি স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তা রেকর্ড করেন। এছাড়া শাহীন শেখ ও সোহেল হোসেনের সাত দিনের রিমান্ড এবং হায়দার আলীকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত আসামি মুন্নার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। আরেকটি আদালত আসামি শাহীন শেখ ও সোহেল হোসেনের দুই রিমান্ড মঞ্জুর করেন এবং হায়দার আলীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এদিকে, মঙ্গলবার রাজধানীর মোহাম্মদপুর, আদাবর ও বছিলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে তেজগাঁও জোনাল টিম। এসময় তাদের কাছ থেকে লুণ্ঠিত দুইটি মোবাইল ফোন ও একটি ট্যাব উদ্ধার করা হয়। সেই সাথে ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত একটি চাপাতি, দুইটি ছুরি ও একটি প্রাইভেটকার উদ্ধার করা হয়।

গত ১২ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ১১টার দিকে শেরেবাংলা নগর থানাধীন বৌ-বাজার মোড়ে একটি সাদা রংয়ের প্রাইভেটকার যোগে আসা চারজন ডাকাত বিকাশ এজেন্ট হাসান বেপারীকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। তার সঙ্গে থাকা আট লক্ষ টাকা ও মোবাইল ফোনসহ সবকিছু ডাকাতি করে নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় গত ১৩ সেপ্টেম্বর অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে হাসান বেপারীর স্ত্রী মদিনা আক্তার শেরেবাংলা নগর থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা