kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ কার্তিক ১৪২৭। ২২ অক্টোবর ২০২০। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

দেশের ৮০০ পাঠাগারে শুরু হবে বঙ্গবন্ধুর পাঠ কার্যক্রম

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ২২:০৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের ৮০০ পাঠাগারে শুরু হবে বঙ্গবন্ধুর পাঠ কার্যক্রম

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের তিনটি বইয়ের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশের এক শ বছরের ইতিহাস। রাজনীতির পাশাপাশি রয়েছে সমাজনীতি, অর্থনীতি, সংস্কৃতি। বই তিনটি পাঠের মধ্য দিয়ে একজন মানুষ সত্যিকারের বাঙালি হয়ে উঠতে পারে। তাই এই বইগুলো পাঠের মাধ্যমে আগামী প্রজন্মের মধ্যে পাঠাভ্যাস গড়ে তোলা ও তাদের দেশপ্রেমিক হিসেবে গড়ে তোলার তাগিদ দিয়েছেন বিশিষ্টজনেরা।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ‘পড়ি বঙ্গবন্ধুর বই, সোনার মানুষ হই’ শিরোনামে জাতির পিতার রচনা পাঠ কার্যক্রমের উপদেষ্টামণ্ডলীর সঙ্গে রাজধানীর দশ গ্রন্থাগারের প্রতিনিধিদের মতবিনিময় সভায় এ তাগিদ দেওয়া হয়।

রবিবার সকালে জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের সভা কক্ষে ছিল এ আয়োজন। 

পাঠাগার প্রতিনিধিরা জানান, করোনাকালীন সময়েও বঙ্গবন্ধুর বই পাঠকে কেন্দ্র করে রাজধানীর পাঠাগারগুলো প্রাণ ফিরে পেয়েছে। তিনটি বই পনের জনকে পড়তে দিতে বলা হয়েছে। কিন্তু ব্যাপক আগ্রহের কারণে আরো বেশি সংখ্যক শিক্ষার্থীকে সুযোগ দিতে হয়েছে। 

অনুষ্ঠানের সভাপতি জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালক কবি মিনার মনসুর জানান, এই কর্মসূচিতে যে সাড়া পাওয়া গেছে, তার প্রেক্ষিতে সারা দেশের সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত ৮০০ পাঠাগারে এই পাঠ কার্যক্রম শুরু করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। 

আলোচনায় অংশ নেন কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি মফিদুল হক, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাইফুল আলম।

স্বাগত বক্তব্য দেন জাতীয় গ্রন্থ কেন্দ্রের উপ-পরিচালক সুহিতা সুলতানা। পাঠাগার প্রতিনিধিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন খিলগাঁওয়ের শহীদ বাকী স্মৃতি পাঠাগারের সম্পাদক আনিসুল হোসেন তারেক, মিরপুর সৃষ্টি পাঠোদ্যানের সভাপতি আশরাফুল আলম সিদ্দিক, তেজগাঁও শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতি পাঠাগারের সভাপতি আলী মো. আবু নাইম ও দনিয়া পাঠাগারের সভাপতি শাহনেওয়াজ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা