kalerkantho

সোমবার । ১০ কার্তিক ১৪২৭। ২৬ অক্টোবর ২০২০। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

গণতান্ত্রিক বাম ঐক্যের গণজমায়েত

দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৬:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে

পেঁয়াজসহ সকল নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে সরকারের কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানিয়েছে গণতান্ত্রিক বাম ঐক্য। আজ শনিবার জাতীয় প্রেস কাবের সামনে দেশব্যাপী কৃষক-শ্রমিক-মেহনতী মানুষের দাবি দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠিত গণজমায়েত থেকে এই দাবি জানানো হয়।

সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টির সাধারণ সম্পাদক সামছুল আলমের সভাপতিত্বে গণজমায়েতে বক্তৃতা করেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী)’র সাধারণ সম্পাদক ডা. এম এ সামাদ, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হারুন খান, কৃষক মোর্চার আহ্বায়ক মোহাম্মদ মাসুম, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী)’র কেন্দ্রীয় সদস্য সামছুল হক সরকার, সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টির কেন্দ্রীয় সংগঠক হেমায়েত উদ্দিন প্রমুখ।

গণজমায়েতে ৫ দফা দাবি তুলে ধরে বলা হয়, সার্বজনীন রেশনিং ব্যবস্থা চালু, কর্মচ্যুত শ্রমিকদের জন্য বিশেষ আর্থিক প্রণোদনার ব্যবস্থা করতে হবে। গ্রামে গ্রামে সমবায় কৃষি খামার ও গ্রামীণ স্তরে আধুনিক চিকিৎসা ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে। একইসঙ্গে কৃষকের অর্থকরী ফসল পাট উৎপাদন ও পাট পণ্যের প্রসারে বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে। কৃষক-শ্রমিক-মেহনতী মানুষের সংকট সমাধানের লক্ষে ওই সকল দাবি বাস্তবায়নে দ্রুত পদপে গ্রহণের আহ্বান জানানো হয়।

গণজমায়েতে নেতৃবৃন্দ বলেন, ব্যাপক চাহিদার ঘাটতি, ভয়াবহ বন্যা ও যোগাযোগ ব্যবস্থা অচল থাকায় কৃষক সমাজ ফসলের ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত। নগর ও গ্রামীণ অর্থনীতির মন্দায় দিন আনে দিন খায় মানুষগুলো ন্যূনতম উপার্জন থেকে বঞ্চিত। এই অবস্থায় গত কিছু দিন ধরে নিত্যপণ্যের (মোটা চাল, পেঁয়াজ, ভোজ্য তেল ও শাক-সবজি) বাজারে পাগলা ঘোড়া দৌড়াচ্ছে। সাধারণ খেটেখাওয়া মানুষগুলোর পরিবার পরিজন নিয়ে নাভিশ্বাস উঠেছে। তাই নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে দ্রুত কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা