kalerkantho

শুক্রবার । ১০ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৭ সফর ১৪৪২

দেশের প্রতি জেলায় প্লাজমা সেন্টার দরকার : ডা. জাফরুল্লাহ

অনলাইন ডেস্ক   

১৫ আগস্ট, ২০২০ ১৭:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের প্রতি জেলায় প্লাজমা সেন্টার দরকার : ডা. জাফরুল্লাহ

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চোধুরী বলেছেন, আমি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হবার পর নড়াচড়াই করতে পারছিলাম না। তখন অধ্যাপক এম এ খান আমাকে প্লাজমা নিতে বলেন। সঠিকভাবে সঠিক সময়ে যদি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে প্লাজমা দেওয়া যায়, তাহলে রোগী সুস্থ হয়ে ওঠে। তাই দেশের প্রতিটা জেলায় প্লাজমা সেন্টার হওয়া দরকার।

আজ শনিবার (১৫ আগস্ট) ধানমন্ডিতে গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালের প্লাজমা সেন্টার উদ্বোধন অনুষ্ঠানের বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, করোনাভাইরাস শরীরে বিভিন্ন রকম উপসর্গ সৃষ্টি করে। করোনামুক্ত হলেও শরীর অনেক দুর্বল করে দেয়। তাই প্লাজমার বিষয়টি আরো অনেক প্রচার হওয়া দরকার। আমার মতে অধ্যাপক এম এ খানের নেতৃত্বে বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায় প্লাজমা সেন্টার হওয়া দরকার।

তিনি আরো বলেন, আমরা গণস্বাস্থ্যের প্লাজমা সেন্টারে প্রতিদিন ২৫ জন করোনামুক্তদের থেকে রক্ত সংগ্রহ করব। প্লাজমা দেওয়ার অনেকগুলো নিয়ম আছে। আমরা অত্যন্ত সায়েন্টিফিক নিয়ম মেনেই রক্ত থেকে প্লাজমা সংগ্রহ করব। আপনারা জানেন ৪ মাস পর রক্ত পানি হয়ে যায়। সুতরাং জনস্বার্থে গণমাধ্যমের কাছে আমার আবেদন আপনারা করোনামুক্তদের রক্ত দান করতে বলেন।

উদ্বোধনকালে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের হেমাটোলজি বিভাগের প্রধান ও প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ সংক্রান্ত বিশেষজ্ঞ কমিটির প্রধান অধ্যাপক ডা. মহিউদ্দিন আহমেদ খান।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালের আইসিউ প্রধান নাজির মোহাম্মদ, প্যাথলজি বিভাগের প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ডা. গোলাম মো. কোরেইশী।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা