kalerkantho

বুধবার । ৮ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৫ সফর ১৪৪২

শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে তিন কিশোরে মৃত্যু, আইন ও সালিশ কেন্দ্রের উদ্বেগ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ আগস্ট, ২০২০ ১৯:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে তিন কিশোরে মৃত্যু, আইন ও সালিশ কেন্দ্রের উদ্বেগ

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে (বালক) তিন কিশোর নিহত হওয়ার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক)। পাশাপাশি শিশু কিশোরদের নিরাপত্তা প্রদানে ব্যর্থ হওয়ায় কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে নিরপেক্ষ তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানানো হয়। শুক্রবার আইন ও সালিশ কেন্দ্রের চেয়ারপারসন এডভোকেট জেড আই খান পান্না স্বাক্ষ্যরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

গণমাধ্যমের বরাতে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কেন্দ্রটির ভেতরে থাকা খাওয়াসহ অভ্যন্তরীণ আরো নানা বিষয়ে অব্যবস্থাপনা নিয়ে কর্তৃপক্ষের ওপর আগে থেকেই অসন্তুষ্টি ছিল এই কেন্দ্রের কিশোরদের। তার জেরে এই ঘটনা ঘটতে পারে বলে পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে। এছাড়া এই উন্নয়ন কেন্দ্রের ভেতরে কর্তৃপক্ষের দুটি গ্রুপে থাকা কিশোরদের অভ্যন্তরীণ কোন দল থেকে সংঘর্ষের সূত্রপাত হতে পারে বলেও পুলিশ জানতে পেরেছেন। অভিযোগ উঠেছে যে কেন্দ্রের কিশোরদের দুই পক্ষের মধ্যে ১৩ আগস্ট বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অতর্কিত সংঘর্ষের ফলে অন্তত আট কিশোর আহত হয়। আরো অভিযোগ উঠেছে, সকাল থেকে বিকাল অবধি বন্দি কিশোরদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের পর কেন্দ্রের সহকারী তত্ত্বাবধায়ক সহ আনসার সদস্যরা তাদের মারধর করেছেন। সন্ধ্যা সাতটার দিকে তিনজনকে গুরুতর অবস্থায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসকেরা তাদের মৃত ঘোষণা করেন। 

উল্লেখ্য, বিভিন্ন অপরাধে জড়িত দেশের বিভিন্ন জেলার ২৮০ কিশোর আদালতের মাধ্যমে ওই কেন্দ্রে অবস্থান করছিলো। এই কেন্দ্রসহ বিভিন্ন কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের নানা অনিয়মের সংবাদ গণমাধ্যমসূত্রে বিভিন্ন সময় জানতে পারা যায়। অধিকাংশ উন্নয়ন কেন্দ্রে কিশোরদের উন্নয়নের জন্য কার্যকর ব্যবস্থা অনুপস্থিত বলে অভিযোগ রয়েছে।
ওই ঘটনায় আসক গভীরভাবে মর্মাহত উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তিতে নিরপেক্ষ তদন্ত সাপেক্ষে ঘটনার কারণ ও কতৃপক্ষের ভূমিকা খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানানো হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা