kalerkantho

শনিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৮ সফর ১৪৪২

শেষ রক্তবিন্দু থাকা পর্যন্ত বিচার চাইবেন শিপ্রা : র‍্যাব

যা ঘটেছে সব বলার জন্য সময় চাইলেন শিপ্রা-সিফাত

নিজস্ব প্রতিবেদক ও বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার    

১১ আগস্ট, ২০২০ ০১:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শেষ রক্তবিন্দু থাকা পর্যন্ত বিচার চাইবেন শিপ্রা : র‍্যাব

কক্সবাজারের রামু থানায় পুলিশের দায়ের করা মাদকের মামলায় জামিন পাওয়া স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শিপ্রা দেবনাথ র‍্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে বলেছেন, ‘শেষ রক্তবিন্দু থাকা পর্যন্ত তাঁর সঙ্গে ঘটে যাওয়া অন্যায়ের বিচার চাইবেন তিনি।’

গতকাল সোমবার র‍্যাব সদর দপ্তরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শিপ্রাকে উদ্ধৃত করে এ কথা জানান র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ। তিনি বলেন, শ্রিপা ও সিফাতকে সব ধরনের নিরাপত্তা দেওয়া হবে।

এর আগে কক্সবাজারের রামু থানার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় শিপ্রা গত রবিবার এবং শাহেদুল ইসলাম সিফাত গতকাল সোমবার জামিনে মুক্ত হয়েছেন। র‍্যাবের তদন্তকারী কর্মকর্তারা এরই মধ্যে শিপ্রা ও সিফাতের সঙ্গে ঘটনার বিষয়ে কথা বলছেন। তাঁরা এখনো মানসিকভাবে বিপর্যস্ত থাকায় তদন্তকারীরা তাঁদের সঙ্গে আরো সময় নিয়ে কথা বলবেন বলে জানান র‍্যাবের কর্মকর্তা আশিক বিল্লাহ।

এ বিষয়ে আশিক বিল্লাহ বলেন, ‘তিনি (শিপ্রা) সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে বিষয়টি বলেছেন তা হচ্ছে, তিনি ন্যায়বিচার পেতে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত লড়াই করবেন।’

এদিকে একটি ফেসবুক স্ট্যাটাসে শিপ্রা লিখেছেন, ‘আমি ন্যায়বিচারের জন্য বহুদূর যেতে প্রস্তুত। পরিবারের কাছে ফিরে এসেছি। আমাকে একটু সময় দিন।’ মানুষের সমর্থন ও সহানুভূতির জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

র‍্যাবের তদন্তদল মনে করছে, ওসি (সাবেক) প্রদীপ, পরিদর্শক লিয়াকত আলী ও নন্দদুলাল রক্ষিতকে জিজ্ঞাসাবাদের আগে এ ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও সাক্ষী সিফাত ও শিপ্রার সঙ্গে বিস্তারিত কথা বলা প্রয়োজন। এ কারণে তিন অভিযুক্তকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদে দেরি হচ্ছে। 

স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সিফাত, শিপ্রা দেবনাথ ও তাহসিন রিফাত নূর ‘জাস্ট গো’ নামের একটি ভ্রমণের ভিডিও চিত্র ধারণ করতে কক্সবাজারে ছিলেন। নিহত মেজর (অব.) সিনহার ইউটিউব চ্যানেলের জন্য তাঁরা এটি নির্মাণ করছিলেন।

যা ঘটেছে সব বলার জন্য সময় চাইলেন শিপ্রা-সিফাত : অন্যদিকে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যার ঘটনায় দায়ের করা তিনটি মামলার আসামি শাহেদুল ইসলাম সিফাত ও শিপ্রা দেবনাথ গতকাল দেশের সব মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। তাঁরা বলেছেন, সিনহা হত্যাকাণ্ডের ঘটনা নিয়ে কেউ কেউ বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। বাস্তবে এই সবই মিথ্যা। 
গতকাল রাতে কয়েকটি বেসরকারি টেলিভিশনে সাক্ষাত্কার দিতে গিয়ে তাঁরা এসব কথা বলেন।

কারামুক্ত সিফাত ও শিপ্রা বলেন, ‘আমরা বেঁচে রয়েছি। তবে আমাদের একজন বন্ধুকে হারিয়েছি। এটাই আমাদের বড় ব্যথা।’ তাঁরা বলেন, দেশবাসী রয়েছে তাঁদের সঙ্গে। সবাইকে ধৈর্য ধরার আহ্বান জানিয়ে সিফাত ও শিপ্রা বলেন, ‘আমরা একটু স্বাভাবিক হই। তারপর জানাব সবাইকে, যা ঘটেছে সব। তার জন্য আমাদের একটু সময় দিন।’

সিফাত বলেন, ‘গুজব রটেছে, আমি পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়েছি। এটা সত্য নয়। আমি ভালো আছি।’ কারামুক্ত সিফাত ও শিপ্রা আরো বলেন, ‘আমরা আছি এবং আমরা থাকব। আমরা দেখে যাব এ ঘটনার শেষ পর্যন্ত।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা