kalerkantho

শুক্রবার। ১৭ আশ্বিন ১৪২৭। ২ অক্টোবর ২০২০। ১৪ সফর ১৪৪২

ভুয়া রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগ স্বীকার করেছেন রিজেন্টের এমডি

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

৫ আগস্ট, ২০২০ ১৭:৩৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভুয়া রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগ স্বীকার করেছেন রিজেন্টের এমডি

মেট্রোরেল প্রকল্পে কর্মরত ৭৬ শ্রমিকের ভুয়া করোনা রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা শাখার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মিজানুর রহমান আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

আজ বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম বাকী বিল্লার আদালতে তিনি ফৌজদারি কার্যবিধি ১৬৪ ধারায় এই জবানবন্দি দেন।

এর আগে ১০ দিনের রিমান্ড শেষে তাকে আদালতে হাজির করা হয়। তিনি স্বেচ্ছায় জবানবন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তা রেকর্ড করার আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এদিকে, গত ২৫ জুলাই শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মইনুল ইসলামের আদালত ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এদিন ভোরে গোপালগঞ্জের একটি বাসা থেকে তাকে উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করে। এর আগে ২০ জুলাই রাতে মেট্রোরেলের একটি সাব-কন্ট্রাক্টর প্রতিষ্ঠানের পক্ষে রেজাউল করীম বাদী হয়ে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. সাহেদ করিমসহ হাসপাতালের কয়েকজনের বিরুদ্ধে এই মামলা করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, মেট্রোরেলে কর্মরত ৭৬ কর্মীর করোনার পরীক্ষা করা হয় রিজেন্ট হাসপাতালে। এজন্য পরীক্ষা প্রতি সাড়ে তিন হাজার করে টাকা নেওয়া হয়। কিন্তু টেস্ট না করেই ভুয়া রিপোর্ট দেওয়ায় কর্মীদের মধ্যে করোনার সংক্রমণ বেড়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা