kalerkantho

বুধবার । ৩১ আষাঢ় ১৪২৭। ১৫ জুলাই ২০২০। ২৩ জিলকদ ১৪৪১

বেসরকারি চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীদের স্কেল অনুসারে বেতন চেয়ে রিট

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ জুলাই, ২০২০ ০৯:৩৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বেসরকারি চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীদের স্কেল অনুসারে বেতন চেয়ে রিট

নির্ধারিত বেতন স্কেল অনুসারে বেসরকারি কলেজ ও হাসপাতালের চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের বেতন-ভাতা-বোনাস প্রদানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন দাখিল করা হয়েছে। রিট আবেদনে চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের বেতন-ভাতা না দিলে বেসরকারি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালগুলোর লাইসেন্স কেন বাতিল করা হবেনা, তার কারণ দর্শানোর জন্য রুল জারির আরজি জানানো হয়েছে।

মিরপুরের বাসিন্দা ডা. এএসএম এ নুরের পক্ষে অ্যাডভোকেট ইয়াদিয়া জামান ও জামিউল হক ফয়সাল মঙ্গলবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ রিট আবেদন দাখিল করেন। রিট আবেদনে স্বাস্থ্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) সহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে।

রিট আবেদনে বলা হয়, গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ পর্যালেচনা করে দেখা গেছে- চলমান পরিস্থিতিতে দেশের বেসরকারি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ডাক্তার, কর্মকর্তা এবং কর্মচারীরা বোনাস পাচ্ছেন না। ডাক্তারদের বেতন অর্ধেক করে দেওয়া হয়েছে। আবার কোনো কোনো হাসপাতালে বেতন দেওয়া হচ্ছে না। জোর করে ছুটিতে পাঠানো হচ্ছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে সারা পৃথিবী ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রতি ভরসা এবং বিশ্বাসের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। এমনকি ঘানার মত দেশ ডাক্তারদের বেতন ৫০ শতাংশ বৃদ্ধি করেছে। অথচ আমাদের দেশে ডাক্তারদের প্রতি বিরূপ আচরণ করা হচ্ছে। তাদের বেতন কেটে নেওয়া হচ্ছে। এমনকি বাড়ি থেকে উচ্ছেদের ঘটনাও ঘটছে। ডাক্তারদের শারীরিক, মানসিক এবং অর্থনৈতিকভাবে পঙ্গু করে দেওয়া হচ্ছে। আবার তাদের কাছ থেকে সেরা সেবা আশা করা হচ্ছে।

রিট আবেদনে বলা হয়, প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ অ্যাসোসিয়েশন গত ২ মে এক নোটিশে ঘোষণা করে, তারা ডাক্তারসহ কোনো কমর্কতা, কর্মচারীদের বোনাস দেবে না। ডাক্তারদের বেতন ৪০ শতাংশ কেটে নেওয়া হবে এবং যে সকল ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মী ২৪ ঘণ্টা কাজ করবেন তাদের সম্পূর্ণ বেতন দেওয়া হবে। পরবর্তীতে ডাক্তাররা প্রতিবাদ জানালে ৪ মে পৃথক এক নোটিশ দিয়ে আগের ঘোষণা প্রত্যাহার করে নেয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা