kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৩ আষাঢ় ১৪২৭। ৭ জুলাই ২০২০। ১৫ জিলকদ  ১৪৪১

২৬৯ রোহিঙ্গা ফেরতের মালয়েশিয়ার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান বাংলাদেশের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ জুন, ২০২০ ১০:১৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



২৬৯ রোহিঙ্গা ফেরতের মালয়েশিয়ার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান বাংলাদেশের

ফাইল ফটো

মালয়েশিয়ায় প্রবেশের সময় ২৬৯ জন রোহিঙ্গা বোঝাই একটি নৌকা আটক করেছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। আটক রোহিঙ্গাদের সেদেশে জায়গা দিতে নারাজ মালয়েশিয়ার সরকার। তারা রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে ফিরিয়ে নেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে। তবে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে এ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন গত রাতে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থাকে (বাসস) টেলিফোনে বলেন ‘বাংলাদেশ তাদের (রোহিঙ্গাদের) নেবে না।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ আর কোনো রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিতে বাধ্য নয়, সে অবস্থাও নেই।’

কোনো রোহিঙ্গা যদি মালয়েশিয়ার ভূখণ্ডে যায় এবং আটক হয় তাহলে বাংলাদেশের কিছু করার নেই বলেও জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের নাগরিক নয়, বরং তারা কয়েক শতাব্দী ধরে মিয়ানমারে বসবাস করছে।’

এর আগে ওই রোহিঙ্গাদের নিজ দেশ মিয়ানমারে না পাঠিয়ে বাংলাদেশে পাঠাতে চান মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব। মঙ্গলবার তিনি জানিয়েছেন, বাংলাদেশকে এসব রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বলা হবে। 

ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বলেন, রোহিঙ্গাদের জানা উচিত, তারা এখানে (মালয়েশিয়া) আসলেও থাকতে পারবে না।’ তিনি জানান, যদি জানা যায় আটক হওয়া অভিবাসীরা বাংলাদেশের কক্সবাজারের আশ্রয় শিবির থেকে পালিয়ে থাকে তাহলে তাদের ফিরিয়ে নিতে ঢাকাকে অনুরোধ জানাবে মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এর আগে গত সোমবার মালয়েশিয়ার লঙ্কাউই দ্বীপের একটি নৌকা থেকে ২৬৯ জন রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়। সেই সঙ্গে এক নারীর মৃতদেহও উদ্ধার করা হয়। ইসমাইল সাবরি বলেন, আটক করা এসব রোহিঙ্গাদের ভাসান চরে পাঠাতে বাংলাদেশকে অনুরোধ করবে মালয়েশিয়া। এছাড়া রোহিঙ্গাদের তৃতীয় কোনো দেশে আশ্রয় দিতে জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআরকে বলা হবে বলেও জানান তিনি। সূত্র : বাসস।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা