kalerkantho

শনিবার । ২৭ আষাঢ় ১৪২৭। ১১ জুলাই ২০২০। ১৯ জিলকদ ১৪৪১

সাদ এরশাদের ওপর নেতা-কর্মীদের হামলা, একজন গ্রেপ্তার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ জুন, ২০২০ ০২:৩০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাদ এরশাদের ওপর নেতা-কর্মীদের হামলা, একজন গ্রেপ্তার

সাদ এরশাদ

সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ছেলে রংপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য সাদ এরশাদের ওপর দলীয় নেতা-কর্মীরা হামলা করেছে। এ সময় তারা চেয়ার ও টেবিল ভাঙচুর করে। মঙ্গলবার (২ জুন) সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত হলেন-টিপু সুলতান (৩২)।

জানা গেছে, রংপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য রাহগীর আল মাহী সাদের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করার জন্য সাবেক রাষ্ট্রপতি মরহুম হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের বাসভবন পল্লী নিবাসে যান রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির ২৭, ২৮, ৩০, ৩১, ৩২ ও ৩৩নং ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে পল্লী নিবাসের মূল ভবনের সামনে বসে শুভেচ্ছা বিনিময় করছিলেন সাদ এরশাদ।

এ সময় সাদ এরশাদকে উদ্দেশ্য করে ২৭নং ওয়ার্ড জাপার সাধারণ সম্পাদক টিপু সুলতান রংপুরী একটি ডিও লেটারে স্বাক্ষর না দেওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এ সময় এমপি সাদ এরশাদের স্ত্রী ও তার সহযোগীরা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠলে নেতা-কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীদের মাঝে হাতাহাতি ও চেয়ার-টেবিল ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ সময় টিপু সুলতানকে গ্রেপ্তার করায় আরেক দফা হামলা করেন বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা।

তবে সাদ এরশাদের ব্যক্তিগত এক কর্মকর্তা জানান, অতর্কিতভাবে উপস্থিত হয়ে সাদ এরশাদকে উদ্দেশ্য করে গালাগালের এক পর্যায়ে তার ওপর হামলা করতে উদ্যত হয় ২৭ নং ওয়ার্ড জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক টিপু সুলতান। সে সময় উপস্থিত নেতা-কর্মী ও ভবনের স্টাফরা তাকে ধরে ফেলে।

খবর পেয়ে তাজহাট থানার পুলিশ এসে তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। ঘটনার সময় সাদের স্ত্রী মাহিমা এরশাদও সেখানে ছিলেন। তবে তারা দুজন অক্ষত থাকলেও রাত সাড়ে ৮টার দিকে আরেক দফা হামলা করে বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা।

রংপুর মেট্রোপলিটন তাজহাট থানার ওসি রুকনুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘এ ব্যাপারে সংসদ সদস্যের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা