kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ১৯ চৈত্র ১৪২৬। ২ এপ্রিল ২০২০। ৭ শাবান ১৪৪১

দিলু রোডে অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের পরিচয় মিলেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক    

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৪:৪৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দিলু রোডে অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের পরিচয় মিলেছে

নিহত রুশদি (মা জান্নাতুল ফেরদৌসের কোলে)। জান্নাতুল ফেরদৌসও গুরুতর দগ্ধ। ছবি : কালের কণ্ঠ।

রাজধানীর নিউ ইস্কাটনে দিলু রোডের একটি পাঁচতলা ভবনে সংঘটিত অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের পরিচয় পাওয়া গেছে। এরা হলেন আব্দুল কাদের লিটন (৪৪), আফরিন জান্নাত জ্যোতি (১৭) এবং কে কে এম রুশদি (৪)।

আব্দুল কাদের বাড়িটির কেয়ারটেকার ছিলেন। তিনি ভবনটির নিচতলায় থাকতেন। আফরিন জান্নাত জ্যোতি রাজধানীর ভিকারুন্নেসা নুন স্কুল অ্যান্ড কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষার্থী ছিলেন। তার বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি। আর নিহত রুশদি (৪) কালের কণ্ঠ'র প্রেসে কর্মরত কে এম শহিদুল্লাহর নাতি। দগ্ধ হয়ে ঢামেকের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন শহিদুল কিরমানি রনি ও তাঁর স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস দম্পতির সন্তান রুশদি। পরিবারের সদস্যরা তার (রুশদি) মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। 

 
ভবনের গ্যারেজে পুড়ে যাওয়া গাড়ি। ছবি : সংগৃহীত। 

এর আগে আজ বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) ভোর সাড়ে ৪টার দিকে রমনা থানাধীন নিউ ইস্কাটনে দিলু রোডে অবস্থিত ওই বাড়ির গ্যারেজে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ শহিদুল কিরমানি রনি (৪০) ও তাঁর স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসের (৩৫) অবস্থা গুরুতর। তাঁদেরকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

বার্ন ইউনিট সূত্রে জানা গেছে, শহিদুল কিরমানি রনির শরীরের ৪৩ শতাংশ এবং তাঁর স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসের ৯৫ শতাংশ পুড়ে গেছে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাঁদেরকে উদ্ধার করে সকাল পৌঁনে ৬টায় বার্ন ইউনিটে নিয়ে আসেন। আর ধোঁয়ায় যে তিনজন অসুস্থ হয়েছেন তাঁরা হলেন সুমাইয়া আক্তার (৩০), মাহাদি (৯) ও মাহমুদুল হাসান (৯ মাস)।

ঢামেক সূত্র জানায়, সকাল পৌনে ৭টার দিকে তিনজনের মৃতদেহ হাসপাতালে আনা হয়। এর আগে ভোরে ধোঁয়ায় অসুস্থ তিনজনকে চিকিৎসার জন্য জরুরি বিভাগে নিয়ে আসেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। তবে তাঁরা আশঙ্কামুক্ত।

লাশ বর্তমানে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের কন্ট্রোল রুম সূত্র জানায়, আজ বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ওই ভবনের গ্যারেজে আগুন লাগে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের আটটি ইউনিট ঘটনাস্থলে যায়। ভোর সাড়ে ৫টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তাৎক্ষণিকভাবে আগুন লাগার কারণ জানা যায়নি। তদন্তের পর জানা যাবে। 

ফায়ার সার্ভিসের হেড কোয়ার্টার ডিউটি অফিসার মো. বাবুল মিয়া বলেন, দীলু রোডের পাঁচতলা বাড়ির নিচতলায় আগুন লাগে। ৯টি ইউনিট কাজ করেন। সেখান থেকে তিনজনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহ ঢামেক মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা