kalerkantho

রবিবার  । ১৫ চৈত্র ১৪২৬। ২৯ মার্চ ২০২০। ৩ শাবান ১৪৪১

কৃষিমন্ত্রী বললেন

খাদ্য নিরাপত্তার সঙ্গে পুষ্টি নিশ্চিত করতেও গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৯:১৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



খাদ্য নিরাপত্তার সঙ্গে পুষ্টি নিশ্চিত করতেও গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার

কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, সবার জন্য খাদ্য সঙ্গে প্রয়োজনীয় পুষ্টি নিশ্চিত করা বর্তমান সরকারের একটি বড় চ্যালেঞ্জ। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আমরা নানাবিধ কর্মপরিকল্পনা নিচ্ছি। তিনি বলেন, এ কারণেই আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে পুষ্টি ও খাদ্য নিরাপত্তার বিষয়টি অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (আইডিইবি) মিলনায়তনে বাংলাদেশ ক্লাইমেট চেঞ্জ জার্নালিস্ট ফোরাম (বিসিজেএফ) আয়োজিত ‘জলবায়ু পরিবর্তন : খাদ্য নিরাপত্তা  নিরাপদ খাদ্যের নিশ্চয়তায় করণীয়’ শীর্ষক সেমিনারে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ড. রাজ্জাক বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের পাশাপাশি জনসংখ্যা বৃদ্ধি ও কৃষিজমি কমে যাওয়ায় নানান পদক্ষেপ নিতে হচ্ছে। 

তিনি বলেন, দেশের ৪০ শতাংশ লোক কৃষির সঙ্গে সরসরি সম্পৃক্ত। ভবিষ্যতে মেধাবী জাতি গঠনে নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাবার নিশ্চিত জরুরি। মন্ত্রী বলেন, উষ্ণায়ন ও জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে মানুষের জীবন ও জীবিকার ওপর এর প্রভাব অত্যন্ত ক্ষতিকর। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার মানুষের ক্ষুধা ও দারিদ্র্য বাড়ছে। এই বিষয়টিতে চ্যালেঞ্জ নিয়েই কাজ করছে সরকার। 

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকারী হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. সাজ্জাত হোসেন সরকার বলেন, দেশে খাদ্য নিরাপত্তা অনেকটাই নিশ্চিত হয়েছে। কিন্তু সেই খাদ্য সকলে কিনতে পারছে কিনা। খাদ্যে পর্যাপ্ত পুষ্টি আছে কি না সে বিষয়টি নিশ্চিত খতিয়ে দেখতে হবে। 

অনুষ্ঠানে আলোচকবৃন্দ বলেন, কার্বন নিঃসরণ বন্ধ করতে হবে। খাদ্যের গুণগত মান বিচার না করে শুধু স্বাধের ওপর প্রাধান্য দেওয়া যাবে না। খাদ্য নিরাপত্তা আমাদের অস্তিত্বের সঙ্গে জড়িত। 

সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিসিজেএফ এর সাধারণ সম্পাদক মোগাহার হোসেন ও অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন সংগঠনের সভাপতি কাওসার রহমান এবং সভাপতিত্ব করেন আইডিইবি’র সভাপতি একেএমএ হামিদ। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা