kalerkantho

শনিবার । ২১ চৈত্র ১৪২৬। ৪ এপ্রিল ২০২০। ৯ শাবান ১৪৪১

হাবের সংবাদ সম্মেলন

হজযাত্রীদের বিমানভাড়া কমানোর দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ জানুয়ারি, ২০২০ ০৩:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হজযাত্রীদের বিমানভাড়া কমানোর দাবি

চলতি বছর হজযাত্রীদের বিমানভাড়া কমানোর দাবি জানিয়েছে হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব)। ২০২০ সালের হজে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের বিমানভাড়া বৃদ্ধির প্রস্তাবের প্রতিবাদে গতকাল বৃহস্পতিবার হাব আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম ওই দাবি জানান। রাজধানীর নয়াপল্টনে হাব কার্যালয়ে ওই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
 
হাব সভাপতি বলেন, ‘বাংলাদেশ ও সৌদি আরবে হজে কোনো ধরনের চার্জ বাড়েনি, জ্বালানির মূল্য উল্টো কমেছে। ফলে এ বছর বিমানভাড়া বৃদ্ধির কোনো কারণ নেই। হজযাত্রীদের বিমানভাড়া যৌক্তিকভাবে নির্ধারণ করা উচিত।’
 
পুরো বিষয়টি রিভিউ করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মধ্যে একাডেমিক পর্যালোচনার মাধ্যমে দেশের সম্পদ হিসেবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের জন্য ‘ভালো প্রফিট’ রেখে হজযাত্রীদের বিমানভাড়া পুনর্নির্ধারণ করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন হাব সভাপতি।
 
চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৩১ জুলাই পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হতে পারে। সৌদি সরকারের সঙ্গে সম্পাদিত চুক্তি অনুযায়ী এ বছর বাংলাদেশ থেকে মোট এক লাখ ৩৭ হাজার ১৯৮ জন হজ করতে সৌদি আরবে যেতে পারবে। এর মধ্যে এক লাখ ২০ হাজার যাবে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায়। বাকিরা যাবে সরকারি ব্যবস্থাপনায়।
 
হাব সভাপতি বলেন, ‘হজ ব্যবস্থাপনার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশ বিমান পরিবহন। গত বছর হজযাত্রীদের বিমানভাড়া ছিল এক লাখ ২৮ হাজার টাকা। অত্যন্ত পরিতাপের সঙ্গে লক্ষণীয়, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস বিভিন্ন অজুহাতে এ বছর হজযাত্রীদের বিমানভাড়া অতিরিক্ত ১২ হাজার টাকা বৃদ্ধি করে এক লাখ ৪০ হাজার টাকা করার প্রস্তাব করেছে, যা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক ও অনৈতিক।’
 
হজযাত্রীদের ২০১৯ সালের বিমানভাড়া এক লাখ ২৮ হাজার টাকা থেকে এবার আরো কমিয়ে নির্ধারণ করার দাবি জানিয়ে তসলিম বলেন, এ বছর কোনো ব্যয় বৃদ্ধি পায়নি। সৌদি সরকারের কোনো ট্যাক্স বৃদ্ধি পায়নি। বিপিসির তথ্যানুযায়ী, জ্বালানির মূল্যও বৃদ্ধি পায়নি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা