kalerkantho

বুধবার । ৬ ফাল্গুন ১৪২৬ । ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে

বেপরোয়া গতির নীলাচল ও সেলফি পরিবহন নিয়ন্ত্রণের দাবি

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি   

২০ জানুয়ারি, ২০২০ ১৯:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বেপরোয়া গতির নীলাচল ও সেলফি পরিবহন নিয়ন্ত্রণের দাবি

ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে চলাচল করছে নীলাচল ও সেলফি নামে যাত্রীবাহী পরিবহন। এ পরিবহনগুলো বেপরোয়া গতিতে চলাচল করছে প্রতিনিয়ত। এতে অন্যান্য পরিবহনের চালক, যাত্রী ও পথচারীরা অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। এ দুটি পরিবহনে গত পাঁচমাসে কয়েকটি দুর্ঘটনা ঘটেছে। এতে কয়েকজন মারাও গেছে।

গত শনিবারও উপজেলার শ্রীরামপুরের ইমরান নামের এক যুবক ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের মাটির অংশ দিয়ে হেটে বাজারে যাচ্ছিলেন। ওই সময় অপর একটি গাড়িকে দ্রত গতিতে ওভারটেক করার সময় ইমরানকে চাপা দিয়ে চলে যায় নীলাচল পরিবহন। হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়।

এর আগে বাথুলী, বারবারিয়া, জয়পুরাতেও অটোভ্যানকে চাপা দেয় নীলাচল পরিবহন। এতেও কয়েকজন আহত হন। মারাও যান দুজন। এ রকম দুর্ঘটনা প্রায়ই ঘটাচ্ছে নীলাচল ও সেলফি পরিবহন।

মালিকদের সাথে বৈঠক করেও নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না পুলিশ। গোলড়া হাইওয়ে থানার ওসি লুৎফর রহমান বলেন, বেপরোয়া গতির নীলাচল পরিবহনের জন্য আমরা অতিষ্ঠ। মালিকদের নিয়েও বসা হয়েছিল কিন্তু কোনো কাজ হয়নি।

আজ সোমবার ধামরাই থানায় উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে কর্মরত গ্রাম পুলিশদের সাথে আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ঢাকা জেলা এসপি মারুফ হোসেন সরদারের কাছে বেপরোয়া গতির নীলাচল ও সেলফি পরিবহন নিয়ন্ত্রণ করার জন্য দাবি জানান দেপাশাই গ্রামের আবদুর রশিদ তুষার, ধামরাই পৌরসভার আনিসুর রহমান স্বপন, প্রাইভেটকার চালক মাসুদুর রহমানসহ একাধিক ব্যক্তি।

এ সময় নিয়ন্ত্রণের আশ্বাস দিয়ে এসপি মারুফ হোসেন সরদার বলেন, উচ্চ গতি সম্পন্ন পরিবহনের জন্য স্পিড লেজার গান ব্যবহার করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ছাড়া রাস্তাঘাটে চলাচলের সময় সবাইকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা উত্তরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ তদন্ত) সাইদুর রহমান, ধামরাই থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা, ঢাকা জেলা উত্তরের ডিবির ওসি আবুল বাসার, ধামরাই থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) মাসুদুর রহমান।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা