kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

কবিতায় কুঁড়ে ঘর আছে বাস্তবে নেই : তথ্যমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৫:৫২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



কবিতায় কুঁড়ে ঘর আছে বাস্তবে নেই : তথ্যমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্ব এবং সুশাসনে দেশ এখন ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ। কবিতায় কুঁড়ে ঘর আছে বাস্তবে নেই। বাংলাদেশের সাফল্য বিশ্ব নেতাদের নজর কেড়েছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অদম্য গতিতে দেশ এগিয়ে চলেছে।

তথ্যমন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের ২১তম জাতীয় সম্মেলন উপলক্ষে একটি ওয়েব পেজ উদ্বোধন করেন। এসময় তিনি একথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আজকের আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি আওয়ামী লীগকে আধুনিক রূপে গড়ে তুলেছেন। প্রধানমন্ত্রী মানুষকে স্বপ্ন দেখান এবং তা বাস্তবায়ন করেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৮ সালে জাতিকে দুটি স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন, তার একটি হলো ডিজিটাল বাংলাদেশ, আরেকটি দিন বদল। এতে বিরোধী দল উপহাস করেছিল। আজ দেশে প্রায় ১০ কোটি মানুষ মোবাইল ফোন ব্যবহার করে। মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আত্মীয়-স্বজনসহ বিভিন্ন জনের সাথে কথা বলা হয়, টাকা পাঠানো হয়, ভিডিও কনফারেন্স করা হয়। বাংলাদেশের মানুষ পৃথিবীর যে কোনো দেশের সঙ্গে মুহূর্তের মধ্যে যোগাযোগ করতে পারে। এটি আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা এবং প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের অবদান।

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ আরো বলেন, শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্ব এবং সুশাসনে দেশ এখন ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ। কবিতায় কুঁড়ে ঘর আছে বাস্তবে নেই। বাংদেশের সাফল্য বিশ্ব নেতাদের নজর কেড়েছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অদম্য গতিতে দেশ এগিয়ে চলেছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি অতীতেও আদালতে হট্টগোল করেছে, বোমা হামলা করেছে এখনও করছে। এটি নতুন নয়। আদালতে হট্টগোল আদালত অবমাননার শামিল।

অপর প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আদালতে বিএনপির হট্টগোলে প্রমাণিত হয়েছে তারা দেশের আইন আদালত মানে না। 

তিনি বলেন, বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার এই মামলায় আদালত বারবার সময় দিয়েছে। আইন তার নিজস্ব গতিতে চলছে। এখানে সরকারের কিছু করার নেই। তারা যদি দেশে নৈরাজ্য করে তাহলে মানুষ তাদের ছাড়বে না। আওয়ামী লীগ জনগণের সাথে থাকবে।

এ সময় তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান, আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, প্রচার উপ-কমিটির সদস্য শেখ তন্ময়, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, আখতার হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ওয়েব পেজে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংগ্রামি জীবনের তথ্যসহ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড দেখা যাবে। এছাড়াও বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে আন্তর্জাতিক নেতাদের মন্তব্য ওয়েব পেজে সংরক্ষিত থাকবে। আওয়ামী লীগের সম্মেলনের কর্মকাণ্ডও ওয়েব পেজে দেখা যাবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা