kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

‘রোহিঙ্গাদের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের কূটনৈতিক ব্যর্থতা নয়, সীমাবদ্ধতা দায়ী’

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৪:৪৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘রোহিঙ্গাদের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের কূটনৈতিক ব্যর্থতা নয়, সীমাবদ্ধতা দায়ী’

ফাইল ফটো

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেছেন, রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশ থেকে ফেরত পাঠাতে ব্যর্থতা বাংলাদেশের কূটনৈতিক বার্থতা নয়, এটি কূটনৈতিক সীমাবদ্ধতা। এক্ষেত্রে মিয়ানমারের অনড় অবস্থান ও বিশ্বরাজনৈতিক শক্তি দায়ী।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর মাইডাস সেন্টারে বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের (রোহিঙ্গা) নাগরিকদের বাংলাদেশে অবস্থান শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে ড. ইফতেখারুজ্জামান এ কথা বলেন।
 
‘বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের (রোহিঙ্গা) নাগরিকদের বাংলাদেশে অবস্থান: সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায় ’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নে ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘এ পর্যন্ত তিন বার চেষ্টা করেও রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন করা যায়নি। কারণ রোহিঙ্গাদের ফেরত না নিতে মিয়ানমানের অনড় অবস্থান। পার্শ্ববর্তী দেশগুলো তাদের কোনো চাপ দিচ্ছে না। আমাদের সরকার সর্বাত্মক চেষ্টা করে যাচ্ছে। কিন্তু মিয়ানমারের কারণে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সফল হচ্ছে না।’

রোহিঙ্গা সমস্যা বাংলাদেশের সৃষ্ট কোনো সমস্যা নয়, বরং বাংলাদেশের ওপর চাপিয়ে দেওয়া একটি সমস্যা বলে উল্লেখ করেন ইফতেখারুজ্জামান।

তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের কারণে বহুমুখী চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন বাংলাদেশ। আর্থিক চ্যালেঞ্জ তার মধ্যে অন্যতম। রোহিঙ্গাদের কারণে এখন পর্যন্ত দেশের ২ হাজার ৩ শত ৮ কোটি টাকা প্রত্যক্ষ ব্যয় হয়েছে। এর ফলে ভূরাজনৈতিক ও কূটনৈতিক সংকট সৃষ্টি করেছে। মানবিক সহায়তা কার্যক্রমে নিয়মিত ঘুষ,অনিয়ম ও দুর্নীতির ঘটনা ঘটছে।’

আন্তর্জাতিক সংস্থা গণহত্যা বা এ ধরনের ঘটনা প্রতিরোধের চেষ্টা না করে প্রতিকারের চেষ্টা করে জানিয়ে তিনি বলেন, এ সমস্যা নিরসনে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কার্যকর কোনো উদ্যোগ নেই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা