kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

পেঁয়াজের কেজি ২৫০, পচা পেঁয়াজ ফেলা হচ্ছে নদীতে-ভাগাড়ে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ নভেম্বর, ২০১৯ ১৩:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পেঁয়াজের কেজি ২৫০, পচা পেঁয়াজ ফেলা হচ্ছে নদীতে-ভাগাড়ে

সংগৃহীত ছবি

দেশে প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম যখন ২০০-২৫০ টাকা তখন পচে যাওয়া বস্তাভর্তি পেঁয়াজ নদীতে-ভাগাড়ে ফেলে দেওয়া হচ্ছে। 

জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার চট্টগ্রাম নগরের ফিরিঙ্গি বাজার ব্রিজঘাট এলাকায় পচে যাওয়া ১০-১৫ বস্তা পেঁয়াজ কর্ণফুলী নদীতে ফেলে দেওয়া হয়। এর আগের দিন বৃহস্পতিবার রাতে চট্টগ্রামের সবচেয়ে বড় পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জের মসলা মার্কেট হিসেবে খ্যাত হামিদুল্লাহ মার্কেট, চাঁন মিয়া বাজার এবং মধ্যম চাক্তাই এলাকায় প্রায় ১৫ টন পচা পেঁয়াজ ফেলে যায় আড়তদাররা।পরে এসব পেঁয়াজ নগরীর বায়েজিদ বোস্তামি থানার আরেফিন নগর এলাকার আর্বজনা ফেলার স্থানে নিয়ে ফেলে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা। 

এ বিষয়ে আড়তদাররা বলছেন, এসব মিয়ানমার থেকে আনা পেঁয়াজ। পরিবহনের সময় এগুলো নষ্ট হয়ে গিয়েছিল।

পেঁয়াজ ফেলে দেওয়ার বিষয়ে হামিদুল্লাহ মার্কেট কাঁচামাল আড়তদার সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. ইদ্রিচ গণমাধ্যমকে বলেন, “এসব খারাপ পেঁয়াজ মিয়ানমার থেকে আসছে। সেখান থেকে আনার সময় যেগুলো বোটের (নৌকা) নিচে পড়ে সেগুলো পচে যায়। এ রকম দুই থেকে তিন ট্রাক হবে। যেগুলো বিক্রি হয়নি। সেগুলো ফেলে দেওয়া হয় রাতে। এরপর আর ফেলা হয়নি।

প্রসঙ্গত, গত সেপ্টেম্বরে ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। এর পর সরকার মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানির উদ্যোগ নেয়। তবে মিয়ানমারের পেঁয়াজের মান নিয়ে এখনও প্রশ্ন তুলেছিলেন ব্যবসায়ীরা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা