kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

বাবা-মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত খোকা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাবা-মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত খোকা

রাষ্ট্রীয় মর্যাদা, দলের নেতাকর্মী, বিভিন্ন দলের রাজনীতিবিদ ও সাধারণ মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে চিরনিন্দ্রায় শায়িত হলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও অভিক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর জুরাইন কবরস্থানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে তাকে দাফন করা হয়। সাদেক হোসেন খোকা দুইবার প্রতিমন্ত্রী ও মন্ত্রী ছিলেন।

এর আগে ধূপখোলা মাঠে খোকার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। অসংখ্য মানুষ জানাজায় অংশ নেন। জানাজার পর জুরাইনে নেওয়া হয় তার লাশ। এর আগে গোপীবাগে খোকার বাসভবনে মরদেহ রাখা হয়। সেখানে তার প্রতি সম্মান প্রদর্শন করেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় বিএনপির প্রধান কার্যালয়ের সামনের সড়কে তার তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজার আগে নয়াপল্টনে সাদেক হোসেন খোকার প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। কাঁদতে কাঁদতে তিনি বলেন, খোকা ভাই আর আমাদের মাঝে নেই।

নেতাকর্মীদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষও জানাজায় অংশগ্রহণ করেন। নয়াপল্টনের পশ্চিম পাশ থেকে ফকিরেরপুল মোড় পর্যন্ত তিল ধারণের ঠাই ছিল না। নেতাকর্মীদের ভিড়ে দুইপাশের সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সড়কের আশপাশের অলিগলিতেও দাঁড়িয়ে জানাজায় অংশগ্রহণ করতে দেখা গেছে।

দুপুর ২টার দিকে খোকার মরদেহবাহী অ্যাম্বুলেন্স নয়াপল্টন প্রবেশ করেন। নেতাকর্মীদের ভিড় ঢেলে অ্যাম্বুলেন্স কার্যালয়ের সামনে নিয়ে আসতে শীর্ষ নেতাদের ভোগান্তি পোহাতে হয়।

গত বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার কিছু সময় আগে এমিরেটস এয়ারলাইনসের ফ্লাইটে খোকার লাশ নিয়ে নিউইয়র্ক থেকে দেশের উদ্দেশে রওনা দেন তার স্বজনরা। সাদেক হোসেন খোকার লাশ বহনকারী ফ্লাইটটি বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা ২০ মিনিটের সময় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়।

সাদেক হোসেন খোকা সোমবার বেলা ১টা ৫০ মিনিটে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মারা যান। ক্যান্সারে আক্রান্ত খোকা প্রায় পাঁচ বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা